kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পাগলা মিজান মৌলভীবাজার কারাগারে

রিমান্ডের জন্য আবেদন করবে পুলিশ

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাগলা মিজান মৌলভীবাজার কারাগারে

মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গল থানায় র‌্যাবের দায়ের করা অস্ত্র মামলায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজান ওরফে পাগলা মিজানকে মৌলভীবাজার জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ অবৈধ অস্ত্র সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদেও জন্য রিমান্ডের আবেদন করবে।

আজ মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সকাল ১১টায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীমঙ্গল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন মিজানকে মৌলভীবাজার ২নং আমলি আদালতের বিচারক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সালেহীর আদালতে হাজির করেন। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

মৌলভীবাজার কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আব্দুল হাই চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করবে। প্রক্রিয়া চলছে। দুই-একদিনের মধ্যেই আদালতে রিমান্ডের আবেদন দাখিল করা হবে।

মৌলভীবাজার কারাগারের জেল সুপার মো. আনোয়ারুজ্জামান বলেন, কাউন্সিলর মিজানকে রবিবার (২১ অক্টোবর) ঢাকা কারাগার থেকে মৌলভীবাজার কারাগারে আনা হয়। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সকালে তাকে আদালতে নেওয়া হয়। আদালত পুনরায় তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে।

গত ১১ অক্টোবর ভোরে হাবিবুর রহমান মিজানকে শ্রীমঙ্গল পৌর এলাকার গুহ রোডের একটি বাসা থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-২) এর একটি দল আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে একটি অবৈধ বিদেশি পিস্তল, ৪ রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন ও নগদ ২ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। আটকের পরপরই র‌্যাব তাকে ঢাকায় নিয়ে যায়। ঢাকার মোহাম্মদপুর থানায় মিজানের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের হয়।

পরদিন ১২ অক্টোবর ভোরে শ্রীমঙ্গল থানায় র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আব্দুল জব্বার বাদী হয়ে মিজানের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ মিজানকে মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) মৌলভীবাজার আদালতে উপস্থিত করে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা