kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

অন্যায়কারী কখনো মহৎ নেতা হতে পারে না : নুর

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০১৯ ১৬:৫৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অন্যায়কারী কখনো মহৎ নেতা হতে পারে না : নুর

দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর পর অনুষ্ঠিত হয়েছে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। আজ মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সৈয়দপুর রেলওয়ে বিভাগীয় সংস্থার মাঠে ওই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন নীলফামারী ২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর এমপি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আসাদুজ্জামান নুর বলেন, জামায়াত, বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চক্রান্ত করছে। আর জঙ্গিরা আবারো দেশে হামলার চেষ্টা চালাচ্ছে। তাই স্বাধীনতা বিরোধীরা যাতে আবারো মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে সেজন্য দলীয় নেতাকর্মীদের সজাগ থাকতে হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। তা নাহলে দেশ আবারো ষড়যন্ত্রের শিকার হবে। দলীয় নেতাকর্মীদেও দায়িত্ব হচ্ছে দলকে সুসংগঠিত করা। ক্যাসিনো কেলেংকারী থেকে অনেক কিছুই হচ্ছে। তাই আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের আত্মশুদ্ধির সময় এসেছে। আমাদের আত্মসংযম হতে হবে।

তিনি আরো বলেন, অন্যায়কারী কখনো মহৎ নেতা হতে পারে না। দেশে দুর্নীতি, অবিচার ও অনিয়ম বন্ধে দলীয় নেতাকর্মীদের কী কিছুই করার নেই?

কোনো কাউন্সিলই গুরুত্বহীন নয় দাবি করে তিনি বলেন, প্রতিটি কাউন্সিলেই গুরুত্বপূর্ণ। তাই কাউন্সিলের মাধ্যম ভালো মানুষদের দলের নেতৃত্বে আনতে হবে।

সম্মেলন বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ও নীলফামারী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাবেয়া আলীম এবং নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক। সম্মেলন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আলহাজ্ব মো. আব্দুস সামাদ মণ্ডল।

সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই সাংগঠনিক প্রতিবেদন তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য দেন  সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক মো. আখতার হোসেন বাদল।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সৈয়দপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মো. রফিকুল ইসলাম বাবু ও সাধারণ সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক।

এর আগে মৃত্যুবরণকারী আওয়ামী লীগ নেতা স্মরণে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল মান্নান পাটোয়ারী। এরপর এক মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়।

এর আগে বেলা ১২ টায় রেলওয়ে বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা মাঠে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে বেলুন উড়িয়ে সম্মেলন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

সম্মেলনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. এফাজ উদ্দিন সরকার। সম্মেলন অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের নীলফামারী জেলাসহ অন্যান্য উপজেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিকেলের পর সৈয়দপুর রেলওয়ে পুলিশ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয় সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনের কার্যক্রম। এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব নির্বাচনে কাউন্সিল প্রক্রিয়া চলছিল। সর্বশেষ বিগত ২০০৫ সালের ৩ এপ্রিল নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা