kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভোলা নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস, গ্রেপ্তার প্রবীণ সাংবাদিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ অক্টোবর, ২০১৯ ১১:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভোলা নিয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস, গ্রেপ্তার প্রবীণ সাংবাদিক

ভোলার ঘটনায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় খুলনার প্রবীণ সাংবাদিক মনির উদ্দিন আহমেদ শান্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত রবিবার (২০ অক্টোবর) রাত ৩টার দিকে পুলিশ তার দোলখোলার নিজ বাসভবন থেকে থানায় ডেকে নিয়ে যান। সোমবার সন্ধ্যায় তাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

খুলনা সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শরিফুল আলম বাদী হয়ে মনির হোসেনকে আসামি করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫, ২৮, ২৯ ও ৩১ ধারায় সদর থানায় মামলাটি করেন। 

গ্রেপ্তার মনির উদ্দিন আহমেদ শান্তি দ্য নিউ নেশন পত্রিকার খুলনা প্রতিনিধি। তিনি খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, সাংবাদিক মুনির উদ্দিন ভোলার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার সমালোচনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে উসকানি দেওয়া, দেশের শান্তিশৃঙ্খলা বিনষ্ট করা, সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করা, হিন্দু-মুসলমানদের সম্প্রীতি বিনষ্ট করা এবং পুলিশ বাহিনীর মনোবল নষ্ট করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

খুলনা মহানগর পুলিশের মুখপাত্র এডিসি শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু বলেন, মনির আহমেদ তাঁর ফেসবুক পেইজে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনায় উসকানিমূলক স্ট্যাটাস দেন। এতে ভোলার পুলিশ সুপারকে নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক মন্তব্য করায় উর্ধ্বতন মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ হয়। এ জন্য পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে তাঁকে আটক করে থানায় আনা হয়। তিনি ভোলার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার সঙ্গে ইসরায়েলি পুলিশ বা ইহুদিদের সঙ্গে তুলনা করেছেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সাইদুর রহমান বলেন, তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাস ছিল উসকানিমূলক। তাঁকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিরুল ইসলাম আজ মঙ্গলবার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে তাঁকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা