kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বাড়ি পরিদর্শনে এমপি শিবলী সাদিক

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২১ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বাড়ি পরিদর্শনে এমপি শিবলী সাদিক

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের টিআর কাবিটা প্রকল্পের বিশেষ বরাদ্দে গরিব অসহায় পরিবারের জন্য ৩০টি সেমিপাকা বাড়ি নির্মাণ করা হয়।

আজ সোমবার দুপুরে দিনাজপুর ৬ আসনের এমপি শিবলী সাদিক পৌর শহরের মুক্তা বেগম নামের এক মহিলার বাড়ি পরিদর্শন করেন।

সাংসদকে কাছে পেয়ে মুক্তা বেগম আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, আমার জীবন দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর এই ঋণ শোধ করতে পারব না। আমার বাড়ি ছিল না, দেশনেত্রী আমাকে বাড়ি বানিয়ে দিয়েছেন। আমার জীবনে কোনো স্বপ্ন ছিল না যে আমি পাকা বাড়িতে ঘুমাতে পারব। শেখ হাসিনা আমাদের সেই স্বপ্ন পূরণ করে দিয়েছেন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের টিআর কাবিটা প্রকল্পের বিশেষ বরাদ্দে বিরামপুর উপজেলায় গরিব-অসহায় পরিবারের জন্য ৭৭ লক্ষ ৫৫ হাজার ৯ শত ৩০ টাকা ব্যয়ে দুর্যোগ সহনীয় ৩০টি সেমিপাকা বাড়ি তৈরি করা হয়। প্রতিটি বাড়ি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২ লাখ ৫৮ হাজার ৫৩১ টাকা।

বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তৌহিদুর রহমান বলেন, গ্রামীণ দরিদ্র জনগোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়নের দুর্যোগ প্রবণ এলাকায় টেকসই গৃহ নির্মাণে সরকারি প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে বিরামপুর উপজেলায় ৩০ জন গৃহহীন পরিবারকে একটি করে সেমিপাকা দালান ঘর তৈরি করে দেওয়া হয়।

দিনাজপুর ৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক বলেন, দরিদ্র মানুষকে সুন্দর বাড়ি-ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। আগামীতে গ্রাম ও শহরের মানুষের মধ্যে কোনো পার্থক্য থাকবে না।

বাড়ি পরিদর্শনকালে বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খায়রুল আলম রাজু, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুর রহমান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কাওছার আলী অন্যান্য কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা