kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

দামুড়হুদায় নববধূর 'আত্মহত্যা' নিয়ে রহস্য

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১৯:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দামুড়হুদায় নববধূর 'আত্মহত্যা' নিয়ে রহস্য

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় নববধূ ববিতা খাতুনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার রাতে তার শ্বশুর বাড়ি দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। মৃত ববিতা খাতুন দামুড়হুদার কুড়ুলগাছী ইউনিয়নের বুইচিতলা মাঝেরপাড়ার মৃত আবু কাইজারের মেয়ে।

ববিতার পরিবারের লোকজনের দাবি, তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে।

এলাকাসূত্রে জানা গেছে, মাস ছয় আগে দামুড়হুদার উত্তরচাঁদপুর গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলামের সাথে বিয়ে হয় ববিতা খাতুনের। মনিরুল ইসলামের ঘরে আগের স্ত্রী থাকায় সতিনের সংসারে অশান্তিতে ছিলেন ববিতা।

ববিতার বোন ফারিয়া খাতুন অভিযোগ করে বলেন, মনিরুলের ও বড় স্ত্রী লতিফা খাতুন প্রায় ববিতাকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করতো। রবিবার দুপুরে মাছ রান্না করা নিয়ে দুই সতিনের মধ্যে বাকবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে মনিরুল ও লতিফা মিলে ঘরে আটকে রেখে মারধর করে ও তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

ফারিয়া খাতুন আরো বলেন, ববিতার শ্বশুরবড়ির লোকজন তাকে মেরে মুখে বিষ ঢেলে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শুকুমার বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবু রাসেলের নেতৃত্বে আমরা সেখানে যায়। সবকিছু খোঁজ খবর নেওয়ার পর প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে আত্মহত্যা। পরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়রাতদন্তের জন্য লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করি। এ ব্যাপারে দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা