kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

যশোরে ট্রেন-সিএনজি সংঘর্ষ : অলৌকিকভাবে রক্ষা পেল ৫ শিশু

যশোর অফিস   

২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১৩:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যশোরে ট্রেন-সিএনজি সংঘর্ষ : অলৌকিকভাবে রক্ষা পেল ৫ শিশু

আহত হলেও ভাগ্যের জোরে প্রাণে রক্ষা পেল ৫ শিশু শিক্ষার্থী ও তাদের বহনকারী থ্রি-হুইলার চালক। যশোরের ঝিকরগাছায় বেনাপোলমুখী ঢাকা-বেনাপোল ট্রেনের ধাক্কায় এদের বহনকারী থ্রি-হুইলার উল্টে গেলেও প্রাণে রক্ষা পেয়েছে এরা। আজ সকাল সাড়ে ১০টায় ঝিকরগাছা উপজেলার বামনআলী গ্রামের রেল ক্রসিংয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

আহতরা হলো ইয়ামিন হাসান জিহাদ (৬), তাহসিন মাহমুদ (৪) মোস্তাকিম (৫) মিম (১১) লাবিবা (৭) ও থ্রি-হুইলার চালক সুজন কান্তি (৪০)। এদের মধ্যে শিশু মিম ও চালক সুজনের অবস্থা গুরুতর। 

উল্লেখ্য, এই ক্রসিংটিতে কোনো গেট অথবা গেটম্যান নেই। 

আহত তাহসিনের বাবা মনির হোসেন জানান, আহতরা সবাই বামনআলী গ্রামে আইডিয়াল চাইণ্ড একাডেমির শিক্ষার্থী। তারা স্কুল ছুটির পর ওই সিএনজিতে বাড়ি ফিরছিল। সাড়ে ১০টার দিকে বামনআলী রেল ক্রসিং এর ওপর থ্রি-হুইলার পৌঁছালে সেটির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় ট্রেন এসে পড়ে। ট্রেনের ধাক্কায় থ্রি-হুইলার ছিটকে পড়ে তারা আহত হয় সব যাত্রী। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুক হোসেন বলেন, খবর শুনে আমি ঝিকরগাছা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়েছিলাম। সেখানে কেউ ভর্তি নেই। আমি যশোর জেনারেল হাসপাতালের পথে রওনা হয়েছি। 

যশোর জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের ডাক্তার তৌফিক আনোয়ার জানান, আহত মিম ও ড্রাইভার সুজনের অবস্থা গুরুতর। তাদের সিটি স্ক্যান করতে দেওয়া হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা পার না হলে কিছু বলা যাবে না। 

ঝিকরগাছা থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, এ সময় ট্রেনটি দাঁড়িয়ে যায়। ট্রেনচালক নেমে এসে আহতদের গাড়িতে তুলে দেয়। গ্রামের ভেতরে ট্রেনের লাইন। গেটম্যান নেই। চালকদের সতর্ক থাকার দরকার। 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা