kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সীতাকুণ্ডে গায়ে আগুন দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সীতাকুণ্ডে গায়ে আগুন দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সলিমপুরে এক গৃহবধূ স্বামীর ওপর অভিমান করে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার জঙ্গল সলিমপুর ছিন্নমূল বস্তি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম সালমা বেগম (২৮)। তিনি ওই এলাকার ওয়ার্কশপ মিস্ত্রি ওমর ফারুক প্রকাশ রানার স্ত্রী। পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে। এ বিষয়ে জঙ্গল সলিমপুর পুলিশ ফাঁড়িতে একটি জিডি হয়েছে।

থানা সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে জঙ্গল সলিমপুরের ছিন্নমূল বস্তির ৪নং সমাজের বাসিন্দা ওমর ফারুকের ছেলে মিরাজকে তার স্ত্রী সালমা স্কুলে নিয়ে যাবার কথা থাকলেও তিনি স্কুলে নেননি। বেলা ১২টার দিকে ওমর ফারুক বাড়ি ফিরে ছেলে স্কুলে যায়নি দেখে স্ত্রীর সঙ্গে রাগারাগি করেন। এ ঘটনায় চরম ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী সালমা বেগম ঘরে থাকা কেরোসিন নিজের গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

এ সময় এলাকাবাসী তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। সন্ধ্যা ৭টার দিকে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনার পর রাতে জঙ্গল সলিমপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই একরামুল সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর সাধারণ ডায়েরি দায়ের করে বিষয়টি অবগত করেন। জানতে চাইলে জঙ্গল সলিমপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই একরামুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মিস্ত্রি রানার স্ত্রী সালমা বেগম ছেলেকে স্কুলে নিয়ে না যাওয়ায় স্বামী বাড়ি ফিরে রাগারাগি করেন।

এতেই স্বামীর ওপর অভিমান করে তিনি গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুন দেন। এ সময় এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করালেও সেখানে ৭০ শতাংশ দ্বগ্ধ সালমা চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে মারা যান। সীতাকুণ্ড থানার ওসির দায়িত্বে থাকা ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ বলেন, এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের কেউ যদি মামলা দায়ের করতে আসেন তাহলে মামলা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা