kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সোনাগাজীতে নিখোঁজ যুবলীগ নেতা চট্টগ্রামে উদ্ধার

ফেনী প্রতিনিধি   

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোনাগাজীতে নিখোঁজ যুবলীগ নেতা চট্টগ্রামে উদ্ধার

শাহাদাত উল্যাহ

ফেনীর সোনাগাজীতে নিখোঁজের দুদিন পর শাহাদাত উল্যাহ (৪০) নামে এক যুবলীগ নেতাকে বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের কাজীর দীঘি এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। 

তিনি উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক। এর আগে গত মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ভোয়াগ এলাকার বাড়ি থেকে চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য বের হয়ে তিনি নিখোঁজ হন। পরিবারের ধারণা শাহাদাত মলম পাটির খপ্পরে পড়ে নিখোঁজ হয়েছিলেন।

পুলিশ ও পারিবার সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকালে যুবলীগ নেতা শাহাদাত উল্যাহ উপজেলার ভোয়াগ এলাকার নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে মাসুদ নামে অসুস্থ এক বন্ধুকে দেখতে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে যান। ওইদিন রাত ৮টার সময় চট্টগ্রামে পৌঁছান বলে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা হয়।

এরপর তার আর কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। মুঠোফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। স্বজনরা তাকে চট্টগ্রামের আত্মীয়-স্বজনের বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে খুঁজে না পেয়ে রাতভর অপেক্ষা করেন। ঘটনার একদিন পরও তার কোনো সন্ধান না মেলায় গত বুধবার বিকেলে সোনাগাজী মডেল থানায় তার ভাই এরশাদ উল্যাহ বাদি হয়ে একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন।

শাহাদাত উল্যার বাবা শহীদ উল্যাহ বলেন, নিখোঁজের দুইদিন পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম থেকে এক দোকানদার তার মুঠোফোনে কল দিয়ে বলেন তার ছেলে শাহাদাতকে অসুস্থ অবস্থায় কয়েকজন লোক তার দোকানের সামনে রেখে চলে গেছেন। এখন সে তার কাছে আছে। খবর পেয়ে তিনি নিজে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে চট্টগ্রামে গিয়ে কাজীর দীঘি এলাকা থেকে রাতেই তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

তিনি বলেন, শাহাদাত এখনো অসুস্থ, ঘুমে বিভোর। সে কিছুই বলতে পারছে না। তাদের ধারণা শাহাদাত চট্টগ্রামে গিয়ে মলম পার্টির খপ্পরে পড়েছিল। তারা শাহাদাতের কাছ থেকে মোবাইল সেট ও টাকা-পয়সা নিয়ে গেছে। কিভাবে শাহাদাত নিখোঁজ হলো তা চিকিৎসা শেষে বলা যাবে।

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মঈন উদ্দিন আহমেদ নিখোঁজের দুই দিন পর যুবলীগ নেতা উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি পরিবারের কাছ থেকে তিনি শুনেছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা