kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিনা টিকেটে ট্রেনে ওঠায় জরিমানা গুনলেন ট্রেন পরিচালক-এসআই

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০১:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিনা টিকেটে ট্রেনে ওঠায় জরিমানা গুনলেন ট্রেন পরিচালক-এসআই

টিকিট না কেটে ও বিনা পাশে ট্রেন ভ্রমণ করার অপরাধে এবার জরিমানা দিলেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে পাকশি বিভাগীয় দপ্তরের ট্রেন পরিচালক (গার্ড) রুবেল আলী ও ঈশ্বরদী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঈশ্বরদী স্টেশনে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঈশ্বরদী হয়ে রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনে ভ্রমণ পাশ না নিয়ে বা টিকিট না কাটায় রেলওয়ে গার্ডকে ও গত বুধবার চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী আন্তঃনগর রুপসা এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রী এসআইকে জরিমানাসহ টিকিট কাটান রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) মো. আনোয়ার হোসেন ও বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন।

পাকশি বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা  আবদুল্লাহ আল মামুন বৃহস্পতিবার রাতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

রেলওয়ের বিভিন্ন সূত্র মতে, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে রেলওয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ট্রেন যাত্রীদের ধুমপান, হকার, হিজড়া ও ভিক্ষুকমুক্ত রেলসেবা প্রদানের লক্ষে বিনা টিকিটের যাত্রীদের নিকট থেকে  ভাড়াসহ-জরিমানা আদায় অভিযান চলছিল।

এ সময় খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঈশ্বরদী হয়ে রাজশাহীগামী আন্তঃনগর কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনে গার্ড রুবেল আলী কোনো পাস বা টিকিট না কেটেই আসছিলেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে আটক করে ঈশ্বরদী থেকে রাজশাহী পর্যন্ত ভাড়াসহ জরিমানা আদায় করে।

অন্যদিকে গত বুধবার বিনা টিকিটে ঈশ্বরদী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল ইসলাম চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী আন্তঃনগর রুপসা এক্সপ্রেস ট্রেনে টিকিট না কেটে ঈশ্বরদী স্টেশনে এসে নামেন। এসব আদালতকে টিকিট কিংবা পাশ দেখাতে পারায় তার নিকট থেকেও জরিমানাসহ টিকিটের টাকা আদায় করেন।

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল পাকশি বিভাগীয় ম্যানেজার (ডিআরএম) আহসান উল্লাহ ভূইয়া জানান, যেকোনো রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারী ট্রেনে উঠলে পাস অথবা টিকিট থাকতে হবে। বিনা টিকিটে ভ্রমণ দণ্ডনীয় অপরাধ। ট্রেনের গার্ড তথা রেলওয়ের কর্মচারী টিকিট না কেটে কিংবা পাশ না নিয়ে ট্রেন ভ্রমণ করবে এটা ঠিক না। তাই তাকে জরিমানা করা হয়েছে।

এসব অভিযানে পাকশি বিভাগীয় রেলওয়ের বাণিজ্যিক কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন, রেলওয়ের বিভাগীয় বৈদ্যুতিক প্রকৌশলী খাইরুল ইসলাম, বিভাগীয় সংকেত ও টেলিযোগাযোগ প্রকৌশলী রুবাইয়াত শরীফ প্রান্ত, বিভাগীয় নিরাপত্তা বাহিনীর কমান্ডেন্ট রেজাউন-উর-রহমানসহ রেলওয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও কর্মচারী, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা