kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

যুবলীগ নেতার নির্দেশে আওয়ামী লীগ নেতাকে অপহরণ

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ১৪:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুবলীগ নেতার নির্দেশে আওয়ামী লীগ নেতাকে অপহরণ

বগুড়ার শাজাহানপুরে পিস্তল ঠেকিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মাহফুজার রহমান বাবলুকে (৬০) তুলে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার অন্যতম আসামি রাব্বী (২৪) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জেলা যুবলীগের সদস্য আলহাজ শেখের নির্দেশে আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজার রহমান বাবলুকে অপহরণ করা হয়েছে বলে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে গ্রেপ্তারকৃত আসামী রাব্বী। মঙ্গলবার বিকেলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট খালিদ খান এ জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মামুন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বগুড়া শহরের সূত্রাপুর এলাকায় যুবলীগ নেতা আলহাজ শেখের বাড়ি থেকে রাব্বীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকেলে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। সেখানে রাব্বীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। রাব্বী জানায়, আলহাজ শেখের নির্দেশে নাদিম, হাসান, আমিনুর ও মিঠুসহ পাঁচজন মিলে মাহফুজার রহমান বাবলুকে তুলে নিয়ে গিয়ে আলহাজ শেখের অফিসে পৌঁছে দেন। সেখানে মাহফুজার রহমান বাবলুকে মারপিট করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ সেপ্টেম্বর বেলা ২টার দিকে শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদের দক্ষিণপাশে ভাড়া বাড়ির সামনে থেকে নাদিম নামে এক নব্য যুবলীগকর্মী মোটরসাইকেলযোগে দলবল নিয়ে এসে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহফুজার রহমান বাবলুকে পিস্তল ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে যায়। এরপর বগুড়া শহরের সুত্রাপুর এলাকায় জেলা যুবলীগ নেতা আলহাজ শেখের অফিসে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ নেতা বাবলু বাদী হয়ে ৯ ব্যক্তিকে আসামি করে গত ১ অক্টোবর শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

নাদিম উপজেলার গোহাইল ইউনিয়নের বেড়াগাড়ী গ্রামের জাকির হোসেন লয়ার পুত্র। সে আগে ওয়ার্ড যুবদলের সদস্য ছিল। বর্তমানে সে যুবলীগের কর্মী হিসেবে বিভিন্ন প্রগ্রামে অংশগ্রহণ করে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা