kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আজ কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আজ কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

উদ্বোধনের পূর্ব মুহূর্তে মিষ্টিমুখ

কুড়িগ্রামবাসীর বহুল আকাঙ্ক্ষিত ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ আন্তঃনগর ট্রেনটি কুড়িগ্রাম-ঢাকা-কুড়িগ্রাম রুটে চলাচল শুরু করতে যাচ্ছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন। কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের বাণিজ্যিক যাত্রা আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে। কুড়িগ্রামবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি পূরণ হওয়ায় জেলাজুড়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন, কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন, পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান প্রমুখ। কুড়িগ্রাম-ঢাকা-কুড়িগ্রাম সরাসরি ট্রেনটি চালু হওয়ায় যাতায়াতে দীর্ঘদিনের বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি মিলল কুড়িগ্রামের মানুষের। উদ্বোধনের শেষ পর্যায়ের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে রেল বিভাগ।

ট্রেনটি সপ্তাহের প্রতি বুধবার ছাড়া ছয় দিনই সকাল ৭টা ২০ মিনিটে কুড়িগ্রাম রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে বিকেল ৫টা ২৫ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে। আর ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে ছেড়ে ৬টা ২০ মিনিটে কুড়িগ্রাম স্টেশনে পৌঁছাবে। ট্রেনটি ১৪টি বগি নিয়ে যাতায়াতে রংপুর-বদরগঞ্জ, পার্বতীপুর-জয়পুরহাট, সান্তাহার-নাটোর, মাধনগর-টাঙ্গাইল, মৌচাক-বিমানবন্দর এই ১০টি স্টেশনে যাত্রী উঠানামায় বিরতি থাকবে।

রেলওয়ের লালমনিরহাট বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজ্জাত হোসেন জানান, ট্রেনটি প্রতিদিন ঢাকা-কুড়িগ্রামের ২৮৬.৮ মাইল পথ পাড়ি দেবে। কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকায় যাত্রাকালে মোট ৬৫৭টি আসন সুবিধা এবং ঢাকা থেকে কুড়িগ্রাম যাত্রাকালে ৬৩৮টি আসন সুবিধা থাকবে। শোভন চেয়ার ৫১০ টাকা, এসি চেয়ার ৯৭২ টাকা, এসি সিট ১১৬৮ টাকা এবং এসি বাথ ১৮০৪ টাকা আসন ভাড়া নির্ধারিত হয়েছে।

রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিমাঞ্চল) মো. হারুন অর রশীদ জানান, কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস সার্ভিসের জন্য ইন্দোনেশিয়া থেকে সদ্য আসা নতুন কোচ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস চলাচলের পাশাপাশি রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের জন্য বরাদ্দ করা শাটল ট্রেনটিও চলমান থাকায় দুটি আন্তঃনগর ট্রেনের সুবিধা পাবে কুড়িগ্রামবাসী।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা