kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পাচার এবং চোরাচালান প্রতিরোধে বেনাপোলে বিজিবির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০৮:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাচার এবং চোরাচালান প্রতিরোধে বেনাপোলে বিজিবির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়

মাদক, নারী ও শিশু পাচার এবং চোরাচালান প্রতিরোধে বেনাপোল বিজিবি কনফারেন্স রুমে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সাথে স্থানীয় সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে অনুষ্ঠানে বেনাপোল কোম্পানি সদর ক্যাম্পের সুবেদার আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল সেলিম রেজা।

কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল সেলিম রেজা বলেন, গত এক বছরে ৭৫ কোটি টাকার বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী উদ্ধারের মধ্যে রয়েছে ১২ কেজি স্বর্ণ, সাড়ে পাঁচ কেজি রৌপ্য, তিন লাখ ৬৫ হাজার মার্কিন ডলার, ৬০ লাখ ৭৫ হাজার ভারতীয় রুপি, ৫২ লাখ ২৫ হাজার বাংলাদেশি টাকা, ২২ হাজার বোতল ফেনসিডিল, ৯শ‘ বোতল বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মদ, ৩৪০ কেজি গাঁজা, শাড়ী, থ্রিপিসসহ ভারতীয় বিভিন্ন পণ্য। এ সময় এসব মালামালের সাথে ২৮০ জনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে শুধু বেনাপোল আইসিপি ও আমড়াখালী চেকপোস্ট থেকে ৫০ কোটি টাকার পণ্য আটক করা হয়। যা সরকারি রাজস্ব খাতে জমা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিশাল সীমান্ত এলাকায় আমরা মাদক নির্মুল করার জন্য চেষ্টা করছি। এসব সীমান্ত পথে অভিনব কায়দায় চোরাচালানিরা মাদক নিয়ে আসে। আমরা মাথার চুলের ভেতর, তরমুজ, কাঁঠাল, প্রসাধনী, শুকনা মরিচের ভিতর থেকে ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। এছাড়া মহিলা ও পুরুষরা গায়ে জড়িয়ে ফেনসিডিল আনছে তাও উদ্ধার করছি। মাদক ব্যবসায়ীরা নিত্য নতুন কৌশল অবলম্বন করছে।

সভায় মাদকের সুফল কুফল, সীমান্তে অবৈধ পারাপার, মাদক, নারী ও শিশু পাচার প্রতিরোধ ও পাসপোর্টযাত্রীরা হয়রানি না হয় সে বিষয়ে বিজিবিকে সহযোগিতা করার কথা জানান। সেই সাথে জানানো হয়, নারীরা বেশী জড়িয়ে পড়েছে মাদক চোরাচালানীতে। বিশেষ করে মাদক বহনে ব্যবহৃত হচ্ছেন তারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা