kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কিশোরী অপহরণে দাদা নাতি জেলে

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরী অপহরণে দাদা নাতি জেলে

অষ্টম শ্রেনীতে পড়া এক কিশোরী অপহরণ মামলায় শেরপুরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্ত দুজনকে। গ্রেপ্তার করা সজিব মিয়া (১৮)  ও তার দাদা মকছেদ আলী (৬০) ছাড়াও মামলাটিতে আসামি রয়েছেন পরিবারের তিন সদস্য। তারা পলাতক। উদ্ধার করা কিশোরীর জবানবন্দি রেকর্ডের উদ্যোগ নিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার দাদা ও নাতিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ভেলুয়া ইউনিয়নের চরশিমুলচড়া গ্রামে  সোমবার সন্ধ্যায় কিশোরী অপহরণের ঘটনা ঘটে। অষ্টম শ্রেণীতে পড়া এক কিশোরী পাশে চাচার বাড়িতে বেড়াতে গেলে অপহরণের শিকার হয়। একই গ্রামের জহুরুল হকের ছেলে সজিব মিয়া তাকে অপহরণ করে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ মেলে।

অপহরণ ঘটনায় কিশোরীর বাবা শ্রীবরদী থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামি করা হয় সজিব, তার বাবা-মা, দাদা ও চাচাকে। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে সজিবদের বাড়ি থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে। গ্রেপ্তার করা হয় সজিব মিয়া ও তার দাদা মকছেদ আলীকে।

কিশোরীর বাবা জানান, বাড়ির পাশে একটি স্কুলে অষ্টম শ্রেণীতে পড়া তার কন্যাকে সজীব দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল। এজন্য স্কুল পরিবর্তন করা হয়। এ পর্যায়ে সজীব তাকে অপহরণ করে।

শ্রীবরদী থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বলেন, 'এজাহারনামীয় ৫ আসামির মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।  কিশোরীকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। বুধবার আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা