kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নান্দাইলে নিখোঁজ নারীর লাশ ভাসছে নদীতে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নান্দাইলে নিখোঁজ নারীর লাশ ভাসছে নদীতে

ময়মনসিংহের নান্দাইলের নরসুন্দা নদী থেকে নিখোঁজ এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার বিকেলে নান্দাইলের রসুলপুর এলাকার যুগিহাটা নামক স্থান থেকে নদীতে ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার দুপুরের পর স্থানীয় নরসুন্দা নদীতে ভাসমান অবস্থায় এক নারীর লাশ ভাসতে দেখতে পায় স্থানীয় লোকজন। পরে জানা যায় গত সোমবার বিকেল থেকে নিখোঁজ  হওয়া বরুনা কান্দা গ্রামের মৃত আমীর হোসেনের স্ত্রী অজুফা বেগমের লাশ এটি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পাশের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ি ইউনিয়নের কবিরপুর গ্রামের মৃত একাব্বর আলীর মেয়ে অজুফা বেগম। এক বছর আগে স্বামী মারা যাওয়ার পর নান্দাইলের চন্ডীপাশা ইউনিয়নের বরুনা কান্দা গ্রামে স্বামীর বাড়িতেই বসবাস করতেন।

নিহত অজুফার মেয়ে রত্না বেগম জানান, মা অজুফা বেগম তার চার বছরের মেয়েকে নিয়ে বসবাস করতেন। আয় রোজগারের জন্য তিনি বসতঘরের সাথেই একটি মনিহারি দোকান করেন। এর আয় থেকেই তিনি জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত কয়েক দিন আগে দোকানে চুরি সংগঠিত হলে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন।

নিহত অজুফার ভাগ্নে চাঁন মিয়া জানান, তিনদিন আগে মামী অজুফা তাকে জানিয়েছিল রাতে দোকান ঘরের টিনের বেড়ার কয়েক স্থানে কে বা কারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে ভয় ভীতি দেখায়। এলাকায় জানালেও কেউ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এই অবস্থায় গতকাল সোমবার বিকেল থেকে হঠাৎ তিনি নিখোঁজ হন। এই অবস্থায় বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করেও কোথাও সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে মঙ্গলবার সকালে তার মেয়ে নান্দাইল থানায় গিয়ে একটি জিডি করেন। জিডির কয়েক ঘণ্টা পরই খবর পাওয়া যায় বাড়ির অদূরে নদীতে অজুফার লাশ ভাসছে।

নান্দাইল থানার ওসি তদন্ত আবুল হাসেম জানান, লাশের শরীরে কোনো ধরনের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় একটি অপমত্যু মামলা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ কিশোরগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা