kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কক্সবাজারে বিএনপির সমাবেশে বরকত উল্লাহ ভুলু ও আবদুল আউয়াল মিন্টু

খালেদা জিয়া মুক্ত থাকলে ‘দেশবিরোধী’ কোনো চুক্তি করা যেত না

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:৪৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



খালেদা জিয়া মুক্ত থাকলে ‘দেশবিরোধী’ কোনো চুক্তি করা যেত না

ছবি: কালের কণ্ঠ

কক্সবাজার জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে রবিবার এক জনসমাবেশে কেন্দ্রীয় নেতারা বলেছেন- ‘ফেনী হলো বেগম খালেদা জিয়ার জন্মভূমি। তিনি যদি আজ মুক্ত থাকতেন ফেনী নদীর পানি ভারতকে দেওয়ার মতো এমন বুকের পাটা কারো ছিল না।’

বিএনপি নেতারা আরো বলেন, ‘২০১৯ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই নিঃশর্তভাবে মুক্ত হবেন বেগম খালেদা জিয়া। আর ২০২০ সালের নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রী হবেন দেশনেত্রী ও দেশের স্বার্থের প্রশ্নের আপসহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া।’

এমন মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ ভুলু ও আবদুল আউয়াল মিন্টু।

বিএনপি নেতৃবৃন্দ আরো অভিযোগ করে বলেন, বাংলাদেশের স্বার্থ ভারতের কাছে বিকিয়ে দেওয়ার জন্যই বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করে রাখা হয়েছে। তিনি কারাগারের বাইরে থাকলে শেখ হাসিনা সরকারের পক্ষে ভারতের সঙ্গে একের পর এক বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী চুক্তি করতে পারত না।

বিএনপির কেন্দ্রীয় এই দুই নেতা মনে করেন, যুবলীগ-ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা হাজার হাজার কোটি টাকা লুপাট করলেও তাদের কোনো সাজা হয় না। অথচ দেশের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী, দেশের সবচাইতে জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মাত্র দুই কোটি টাকার একটি মিথ্যা মামলায় নির্জন কারাগারে বন্দি করে রেখেছে সরকার। যদিও দুই কোটি টাকা লোপাটও হয়নি এবং সেই টাকার সঙ্গে বেগম খালেদা জিয়ার কোনো সংশ্লিষ্টতাও নেই।

দেশবিরোধী চুক্তি বাতিল, শহীদ আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ এবং দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিএনপি দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে কক্সবাজার জেলা বিএনপি এই জনসমাবেশের আয়োজন করেছিল।

সমাবেশের শুরুতে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের খন্ড খন্ড মিছিল এসে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে জড়ো হয়। ওই মিছিল থেকে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’, ‘দেশবিরোধী চুক্তি বাতিল করো, করতে হবে’, ‘শহীদ আবরারের খুনিদের ফাঁসি চাই’ শ্লোগান দিয়ে সমাবেশস্থল মুখরিত করে তোলা হয়। 

কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক হুইপ শাহজাহান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ ভুলু। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও শিল্পপতি আবদুল আউয়াল মিন্টু।

এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক ও কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সাবেক সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল, ২০ দলীয় জোট নেতা ও এনডিপি চেয়ারম্যান ক্বারী মোহাম্মদ আবু তাহের।

জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক আকতার চৌধুরী ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এম. মোকতার আহমদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী, সহ-সভাপতি ও পৌর বিএনপির সভাপতি রফিকুল হুদা চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক আখতারুল আলম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা শ্রমিক দল সভাপতি রফিকুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাশেদ মোহাম্মদ আলী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি অধ্যাপক আজিজুর রহমান, উখিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি সরওয়ার জাহান চৌধুরী ও টেকনাফ উপজেলা বিএনপি সভাপতি অ্যাডভোকেট হাছান সিদ্দিকী প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা