kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

এবার পদত্যাগ করলেন বশেমুরবিপ্রবি ভিসির ভাতিজা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২০:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এবার পদত্যাগ করলেন বশেমুরবিপ্রবি ভিসির ভাতিজা

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চেয়ারম্যান খোন্দকার মাহমুদ পারভেজ চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

আজ রবিবার বিকেলে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার অধ্যাপক ড. নূরউদ্দিন আহমেদের কাছে এই পদত্যাগ পত্র জমা দেন।

এর আগে দুপুরে আগামী তিন কার্য দিবসের মধ্যে তার চেয়ারম্যান ও শিক্ষকতা পদ থেকে অপসারণের দাবিতে রেজিস্টারের কাছে অনাস্থা পত্র জমা দেন ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

এদিকে এদিন সকাল ৯টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত আই আর বিভাগের সামনে ওই শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীরা বিভাগের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

শিক্ষার্থীরা অনাস্থাপত্রে লিখেছেন, অযোগ্যতা সত্ত্বেও খোন্দকার মাহমুদ পারভেজ শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পান। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার জন্য যে সব শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজন সে গুলোর একটিও তার নেই। তিনি প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়ে সেকশন অফিসার পদে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। পরে তাকে শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হয় এবং এক পর্যায়ে তাকে আইআর বিভাগের চেয়ারম্যানও করা হয়।

প্রথম থেকেই তিনি ক্লাসে পাঠদানে ব্যর্থতার পরিচয় দিতে থাকেন। তাই তিনি যেসব কোর্স নিয়েছেন সে বিষয়ে আমরা স্বয়ং সম্পূর্ণ ধারণা পাইনি। এ ছাড়াও তিনি প্রতিটি কোর্স সাত থেকে আটটি ক্লাস নিয়েই শেষ করেছেন। এ বিষয়ে প্রথমে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলেও তার চাচা সদ্য পদত্যাগী উপাচার্য অধ্যাপক ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের ক্ষমতাবলে অভিযোগকারীদের বহিষ্কার ও একাডেমিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার হুমকি দিয়ে অভিযোগ তুলে নিতে বাধ্য করেন।

তিনি তৃতীয় ব্যাচের ৩৫ জন শিক্ষার্থীকে অ্যাসাইমেন্টে সুনির্দিষ্ট কারণ ছাড়া শূন্য নম্বর দেন। এ ছাড়া দ্বিতীয় ব্যাচের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে শূন্য নম্বর দিলে তারা এ বিষয়ে তাদের ভুল জানতে চাইলে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেন এবং স্বেচ্ছাচারিতার পরিচয় দেন।

এ ব্যাপারে রেজিস্টার অধ্যাপক ড. নূরউদ্দিন আহমেদ বলেন, পদত্যাগ পত্র পেয়েছি। ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যকে অবহিত করা হয়েছে। দ্রুত পরবর্তি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা