kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

দখলমুক্ত হলো সেই আবাসিক চিকিৎসকের বাসা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ১৪:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দখলমুক্ত হলো সেই আবাসিক চিকিৎসকের বাসা

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসকের বাসাটি অবশেষে মুক্ত হয়েছে। কম্পাউন্ডের ভেতর অবস্থিত বাসাটি দীর্ঘদিন যাবৎ দখল করে কর্তৃপক্ষের নাকের ডগায় মিনি হাসপাতাল বানিয়ে চালাচ্ছিলেন উপসহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার রোকেয়া হামিদ। গত ১৫ জুলাই কালের কণ্ঠে 'আবাসিক চিকিৎসকের বাসায় মিনি হাসপাতাল’ শীর্ষক একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে কর্তৃপক্ষ বাসাটি ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু রোকেয়া হামিদ কর্তৃপক্ষের নির্দেশ উপেক্ষা করে মিনি হাসপাতাল চালাতে থাকেন। এ অবস্থায় আবারো কালের কণ্ঠে ফলোআপ নিউজ হলে কর্তৃপক্ষ বাসাটি মুক্ত করেন।

উল্লেখ্য, দত্তের বাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের উপসহকারী মেডিক্যাল অফিসার রোকেয়া হামিদ প্রায় ১৫ বছর যাবৎ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতর কোয়ার্টারে বাসা নিয়ে অনুমতি ছাড়াই এমআর (অবৈধ গর্ভপাত) ও নরমাল ডেলিভারি করছিলেন। প্রায় দেড় বছর পূর্বে আবাসিক চিকিৎসকের বাসা দখল করে 'মিনি হাসপাতাল' বানিয়ে চালাচ্ছিলেন। হাসপাতালে নরমাল ডেলিভারি করানোর জন্য চারজন মিডওয়াইফ থাকা সত্ত্বেও রোকেয়া হামিদ দালালের মাধ্যমে হাসপাতালের ডেলিভারি রোগী বাগিয়ে নিয়ে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তার মিনি হাসপাতালে নিয়ে ডেলিভারি করাতেন।

অভিযোগ আছে, গত ১৫ বছরে অবৈধভাবে অসংখ্য এমআর ও ডেলিভারি করেছেন রোকেয়া হামিদ। ডেলিভারি করতে গিয়ে প্রসূতি মা ও সন্তানের ক্ষতিও হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাইন উদ্দিন খান বলেন, কর্তৃপক্ষের কঠোর অবস্থানের কারণে বাসাটি মুক্ত হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা