kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বললেন

মহৎ কাজের প্রতিষ্ঠান কক্সবাজারের ‘অরুণোদয়’

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহৎ কাজের প্রতিষ্ঠান কক্সবাজারের ‘অরুণোদয়’

কক্সবাজার জেলা শহরে গড়ে তোলা প্রতিবন্ধীদের একমাত্র স্কুল ‘অরুণোদয়’ নিয়ে হতাশার জায়গাটিতে স্বস্তি ফিরে এসেছে সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর একটি আশারবাণীতে। প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি আশ্বস্ত করে জানালেন, ‘এমন একটি চমৎকার প্রতিষ্টান সাগর পাড়ের শহরে গড়ে তোলা হয়েছে। এটি একটি মহৎ কাজের প্রতিষ্টান।’

প্রতিমন্ত্রী প্রতিবন্ধীদের অভিভাবক সমাবেশে বলেন, এ ধরনের মানবিক প্রতিষ্টানগুলোকেই সরকার পৃষ্টপোষকতা দিতে আগ্রহী। তাই কক্সবাজারের অরুণোদয়কেও মন্ত্রণালয় পৃষ্টপোষকতা দিয়ে যাবে বলে তিনি ঘোষণা দেন। গতকাল বুধবার দুপুরে মন্ত্রী ‘অরুণোদয়’ স্কুলটি পরিদর্শনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এমন আশাবাদের কথাটি ব্যক্ত করেন।

কক্সবাজার হিলডাউন ও হিলটপ সার্কিট হাউজ সংলগ্ন এলাকায় জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন উদ্যোগ নিয়ে গড়ে তোলেন প্রতিবন্ধী স্কুলটি। ইতিমধ্যে শতাধিক প্রতিবন্ধীকে নিয়ে স্কুলটির কার্যক্রমও শুরু হয়েছে। গতকাল প্রতিমন্ত্রীর সাথে ছিলেন সমাজসেবা অধিদপ্ততরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ নুরুল কবিরও।

অরুণোদয় স্কুল পরিদর্শনে গেলে প্রতিবন্ধী শিশুরাই মন্ত্রী ও সমাজসেবা মহাপরিচালককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিএম) মো. শাজাহান আলী প্রতিষ্ঠানটির আদ্যোপান্ত তুলে ধরেন। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত কক্সবাজারের বিশিষ্ট সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ বলেন, অরুণোদয় প্রতিষ্টানটি প্রতিবন্ধীদের সেবাদানের পাশাপাশি পর্যটন শহরের অন্যতম একটি দর্শনীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবেও স্থান করে নিচ্ছে। 

এতে অন্যান্যের মধ্যে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা রইস উদ্দিন মুকুল এবং ইউএনএইচসিআর এর লিয়াজো অফিসার ইকতার উদ্দিন বায়েজিদ সহ সরকারি কর্মকর্তা ও প্রতিবন্ধীদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা