kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

প্রতিবাদী নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা

আইনজীবীর দাবি হত্যাকাণ্ডের কথা কোথাও উল্লেখ নেই

ফেনী প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০১:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইনজীবীর দাবি হত্যাকাণ্ডের কথা কোথাও উল্লেখ নেই

ফেনীর আলোচিত মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় গতকাল সোমবারও আদালতে আসামিদের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন আইনজীবীরা। এদিন ঢাকা থেকে আগত আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ কয়েকজন আসামির পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। এ ছাড়া ফেনী বারের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী গিয়াস উদ্দিন নান্নু আসামি সোনাগাজী পৌর কাউন্সিলর মকসুদ আলমের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। তাঁরা দাবি করেন, কোথাও উল্লেখ নেই এটি হত্যাকাণ্ড।

জেলা জজ আদালতের পিপি হাফেজ আহাম্মদ জানান, গতকাল মামলার আসামি মকসুদ আলম, হাফেজ আব্দুল কাদের, উম্মে সুলতানা পপি, ইফতেখার উদ্দিন রানা, এমরান হোসেন মামুন ও শাহাদাত হোসেন শামীমের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে বক্তব্য দেন তাঁদের আইনজীবীরা। ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত আদালত মুলতবি করেন।

আদালত সূত্র জানায়, আইনজীবী গিয়াস উদ্দিন নান্নু বলেন, ৬ এপ্রিল ঘটনার দিন কাউন্সিলর মকসুদ আলম সোনাগাজীতে ছিলেন না। তিনি বাইরে ছিলেন। তিনি এ ঘটনায় কোনোভাবেই সম্পৃক্ত নন। নান্নু বলেন, ঢামেক হাসপাতালের ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন ও ফরেনসিক প্রতিবেদনের কোথাও উল্লেখ নেই যে এটি হত্যাকাণ্ড। এটি আত্মহত্যার ঘটনাও হতে পারে বলে তিনি দাবি করেন।

আরেক আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ বলেন, ৪ এপ্রিল মাদরাসার ভেতরের কোনো কক্ষে একটি পরিকল্পনা সভা হয়েছে মর্মে এর আগে আদালতে বলা হলেও এর কোনো প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষ্য নেই। আবার ঘটনার আগে, ঘটনার সময় ও পরে কেউ কাউকে সিঁড়ি দিয়ে নেমে আসতে বা উঠতে দেখেনি। ঘটনারও কোনো প্রত্যক্ষদর্শী নেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা