kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

কিশোরীর সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত স্বামী, কষ্টে স্ত্রীর আত্মহত্যা!

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরীর সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত স্বামী, কষ্টে স্ত্রীর আত্মহত্যা!

রাজশাহীর তানোরে স্বামী পরকীয়ায় লিপ্ত হওয়ায় সাহেবা খাতুন (৩৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর বড় ভাই সুলতান আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে আজ রবিবার ভোর ৫টার দিকে তানোর পৌর এলাকার চাপড়া গ্রামে। এ ঘটনায় সকালে পুলিশের সার্কেল অফিসার আব্দুর রাজ্জাক খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পুলিশ সকাল ১১টার দিকে সাহেবা খাতুনের স্বামী সেলিমকে আটক করে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চাপড়া গ্রামের আহাদ আলী মণ্ডলের মেয়ে সাহেবা খাতুনের সঙ্গে এই গ্রামের মৃত সিরাজ মাস্টারের ছেলে সেলিমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১৫ বছরের ছেলে সন্তান ও ১৩ বছরের মেয়ে রয়েছে। 

সেলিম এই গ্রামের হাইস্কুল পড়ুয়া এক মেয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত। সাহেবা খাতুন তার স্বামীর পরকীয়ায় বাধা দিলে সেলিম তাকে মারপিট করতেন ও মানসিক চাপে রাখতেন। স্বামীর পরকীয়া ও অন্যায়ভাবে অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তিনি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। 

মামলার বাদী সুলতান বলেন, সেলিম অন্য একটি মেয়ের সঙ্গে পরকীয়া করে। আমার বোন ও ছেলে-মেয়েদের ঠিকমতো খরচ দিতো না। পরকীয়ায় বাধা দেওয়ার কারণে সেলিম আমার বোনকে মারপিট করতো। আমার বোনকে সেলিম মেরে ফেলেছে না কি, সে নিজেই আত্মহত্যার করেছে পুলিশ বলতে পারবে।

তানোর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে ধারনা করছি এটা আত্মহত্যা। লাশ রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলে বোঝা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা