kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১              

লোহাগড়ায় চুরির কথিত অভিযোগ

দিনমজুরকে নির্যাতনের জেরে তিন শিক্ষককে মারধর

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৩:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিনমজুরকে নির্যাতনের জেরে তিন শিক্ষককে মারধর

নড়াইলের লোহাগড়ার চালিঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পানির পাম্প চুরির কথিত অভিযোগে রকি মোল্যা (৩২) নামে এক দিনমজুরকে নির্মম নির্যাতনের জের ধরে ওই দিনমজুরের পক্ষের লোকজন তিন শিক্ষককে পিটিয়ে জখম করেছে। গতকাল শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার স্কুলে যাওয়ার পথে দিনমজুর রকির লোকজন প্রথমে ওই শিক্ষকদের বাধা প্রদান করে হুমকি-ধমকি দেয়। ওই শিক্ষকরা তখন বিদ্যালয়ে না যেয়ে ফিরে আসে এবং আশপাশের গ্রামে গিয়ে পালিয়ে থাকে।

পরে দুপুর দেড়টার দিকে নিজ স্কুলে পুনরায় যাওয়ার পথে কাঞ্চনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যলয়ের উত্তর পার্শ্বে পৌঁছালে দিনমজুরের লোকজন প্রধান শিক্ষক শেখ মো. শাহাবুদ্দিন (৫৫), সহকারী শিক্ষক মো. মহসিন আলম (৪৫) ও সহকারী শিক্ষক মো. সইবুর রহমান (৩৮)কে লাঠিসোটা দিয়ে মারধর করে। স্থানীয়রা আহত শিক্ষকদের উদ্ধার করে লোহাগড়া হাসপাতালে নিয়ে আসে।

লোহাগড়া হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাক্তার শেখ মোহাইমিন বলেন, শিক্ষকদের শরীরের একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মো. সইবুর রহমানের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে গেছে। বাকি দুশিক্ষক এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

আহত চালিঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. শাহাবুদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। শিক্ষকরা জানান, কলাগাছি এলাকার ইসহাক, আসাদ, টিটুল, ফারুক, তিলায়েত, রবি, ফয়সালসহ সাতজনে তাদের মারপিট করেছে। অভিযুক্তদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দুপুরে কাশিপুর ইউনিয়নের চালিঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দিনমজুর রকিকে মারপিট করা হয় বলে অভিযোগ।

লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোকাররম হোসেন বলেন, শিক্ষকদের মারপিটের কথা শুনেছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেব। তিনি আরো জানান, দিনমজুর মারপিটের ঘটনায় ভুক্তভোগী রকি এখনো মামলা দেয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা