kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

মাছ ভর্তায় মিলল বড়শি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ শিক্ষার্থীদের

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাছ ভর্তায় মিলল বড়শি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ শিক্ষার্থীদের

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নওয়াব আব্দুল লতিফ হলের ডাইনিংয়ের খাবারে মাছ শিকারের বড়শি পাওয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। আজ শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে হলের গেট বন্ধ করে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় তারা কয়েকটি চেয়ার ও হলের সিসি ক্যামেরা ভাঙচুর করেন তারা। এদিকে, খাবারে বড়শি পাওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে আজ দুপুরেই তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, লতিফ হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ইমরান হোসেন আজ দুপুরে ডাইনিংয়ে খাওয়ার সময় মাছ ভর্তার মধ্যে একটি বড়শি পান। তখন সে বিষয়টি হলের অন্য শিক্ষার্থীদেরও জানায়। এতে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে হলের প্রধান ফটকের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। 

আন্দোলনরত বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, খাবারে অখাদ্য পাওয়ার বিষয়টি আজকেই প্রথম নয়, এর আগেও হলের ডাইনিংয়ের খাবারে পোকা-মাকড় পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে জানানোর পরও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

বিক্ষোভের একপর্যায়ে শিক্ষার্থীরা ডাইনিংয়ের বেশ কয়েকটি প্লেট, হলের চেয়ার ও সিসি ক্যামেরা ভাঙচুর করেন। পরে বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। তাঁর আশ্বাস পেয়ে শিক্ষার্থীরা শান্ত হন। 

হল প্রাধ্যক্ষ ড. একরাম হোসেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, খাবারে বড়শি পাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। পরে হলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলি। তারা যেসব দাবি জানিয়েছে সেগুলোর মধ্যে বেশ কয়েকটির কাজ চলছে। হলের সার্বিক পরিবেশ উন্নয়নে বাকি কাজগুলোও দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে।

এদিকে, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হলের আবাসিক শিক্ষক সাইফুর রহমানকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে হলের আবসিক শিক্ষক সাইফুর রহমানকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। অন্য দুই আবাসিক শিক্ষক ড. আব্দুল হালিম ও ড. ছালেকুজ্জামান খাঁন সদস্য হিসেবে আছেন।

প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের অভিযোগের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তাদের প্রতিবেদন অনুযায়ী এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা