kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

বিয়ে করতে এসে পুলিশ দেখেই পালাল বর!

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:৩৭ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



বিয়ে করতে এসে পুলিশ দেখেই পালাল বর!

বগুড়ার নন্দীগ্রামে বাল্যবিয়ে করতে আসা বর পুলিশ দেখে ভোঁ দৌড় দিয়ে পালিয়েছে। এর ফলে বাল্যবিয়ে পণ্ড হয়ে যায়। আর বাল্যবিয়ের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেল সাদিয়া খাতুন (১২) নামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী।

গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার থালতা মাজগ্রাম ইউনিয়নের গুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সাদিয়ার সঙ্গে জামালপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে নাঈম হোসেন (১৫) এর বিয়ে ঠিক হয়। বুধবার রাতে কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন চলছিল। এ সময় আচমকা বিয়ে বাড়িতে হাজির একদল পুলিশ। নিমেষেই বদলে যায় বিয়ে বাড়ির চিত্র। পুলিশের উপস্থিতি দেখে বর ও বর যাত্রীর লোকজন পালিয়ে যায়।

কুমিড়া পন্ডিতপুকুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আজিজুর রহমান বলেন, বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন গোপন খবরে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বর ও মেয়ের বাবাসহ লোকজন পালিয়ে যায়। পরে মেয়ের মা এই মর্মে মুচলেকা দেন যে মেয়ের ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত তার বিয়ে দেবেন না। আবারো বাল্যবিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা