kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

ধীরে ধীরে কমছে তিস্তার পানি

নীলফামারী প্রতিনিধি   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৫:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধীরে ধীরে কমছে তিস্তার পানি

নীলফামারীতে উজানের ঢলে বুধবার সকাল ৬ টায় তিস্তা ব্যারেজ পয়েন্টে নদীর পানি বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। এরপর থেকে পানি কমতে শুরু করলে সকাল ৯ টায় ১৮ সেন্টিমিটার এবং দুপুর ১২টায় ২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে জেলার ডিমলার উপজেলার পশ্চিমছাতনাই, পূর্বছাতনাই, টেপাখড়িবাড়ি, খালিশা চাপানি, ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

পূর্বছাতনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান জানান, নদীর পানি বৃদ্ধিতে তার ইউনিয়নের ঝাড়শিঙ্গেশ্বর গ্রামের ৫ শতাধিক পরিবার বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। একইভাবে উপজেলার নদীতীরবর্তী ৫টি ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যাপূর্বভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র সূত্র মতে, গত সোমবার নদীর পানি ব্যারাজ পয়েন্টে বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও মঙ্গলবার সকাল থেকে বাড়তে শুরু করে। রাতে বিপদসীমা অতিক্রম করে। বুধবার সকাল ৬টায় সেখানে নদীর পানি বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। এরপর থেকে কমতে কমতে দুপুর ১২টায় ২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হতে থাকে। সেখানে পানি প্রবাহ আরো কমবে বলে জানায় সূত্রটি।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, ঢলের পানি সামাল দিতে ব্যারেজের সবকটি (৪৪টি) গেট খুলে রাখা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা