kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

মোরেলগঞ্জের সন্ন্যাসী ঘাটে স্টিমার বিকল, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি    

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোরেলগঞ্জের সন্ন্যাসী ঘাটে স্টিমার বিকল, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

বিআইডাব্লিউটিসি'র পরিবহন পিএস লেপচা স্টিমারটি বিকল হয়ে পড়ে আছে মোরেলগঞ্জের সন্ন্যাসী রকেট ঘাটে। স্টিমারটি নির্ধারিত স্টেশন মোরেলগঞ্জ ঘাটের এক স্টেশন আগে গত শনিবার দুপুর ২টার দিকে সন্ন্যাসী ঘাটে এসে  বিকল হয়ে পড়ে। এতে দুর্ভোগে পড়ে পিএস লেপচার যাত্রীরা।

আজ সোমবার (১৬সেপ্টেম্বর) সকালে সন্ন্যাসী স্টিমার ঘাটে দেখা যায়, যাত্রী থাকলেও স্টিমার নেই। স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে ঢাকা যাবেন বলে ঘাটে এসেছেন রবিউল ইসলাম। তিনি জানান, স্টিমার ছাড়া তিনি কখনো যাতায়াত করেন না। এ রকম অর্ধশত যাত্রী স্টিমার না পেয়ে ফিরে গেছেন।

সন্ন্যাসী রকেট ঘাটের ইজারাদার কর্তৃপক্ষের ঘাট পরিচালক মো. মিঠু জানান, পিএস লেপচা ঘাটে এসে বিকল হয়ে পড়েছে। যাত্রীরা কষ্ট করে বিকল্প নৌ ও সড়ক পথে গন্তব্যে পৌঁছেছে। তবে নির্ধারিত সময়ের যাত্রীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

পিএস লেপচার মাস্টার মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, স্টিমারের ইঞ্জিনের কোনো সমস্যা হয়নি। গিয়ারে সমস্যা হয়েছে। তাই সামনে বা পেছনে নেওয়া যাচ্ছে না। এই বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

বাগেরহাট জেলা সদর থেকে সরাসরি নৌপথে ঢাকা যাতায়াতের কোনো মাধ্যম নেই। তবে জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার দুটি স্টেশন মোরেলগঞ্জ সদর ও উপজেলার সন্ন্যাসী ঘাট থেকে  বিআইডাব্লিউটিসি'র শতবর্ষী তিনটিসহ পাঁচটি স্টিমার অবহেলিত এ নৌপথে যাত্রীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। দরিদ্র খেটে খাওয়া সাধারণ  মানুষের বরিশাল, চাঁদপুর ও ঢাকায় নৌপথে যাতায়াতের একমাত্র ভরসা সরকারের শতবর্ষী তিনটিসহ পাঁচটি স্টিমার। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা