kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

গৃহকর্মীকে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে হত্যার অভিযোগ

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গৃহকর্মীকে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে হত্যার অভিযোগ

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় আছিয়া খাতুন নামে এক গৃহকর্মীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম হারুন। গৃহকর্মীর বাসার মালিক নুরুজ্জমান সরকার (বকুল) তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও একটি বেসরকারি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। হারুন তার ছোট ভাই।

নিহতের ভাই শফিকুল ইসলাম জানান, আছিয়া বকুল স্যারের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতেন। গত মঙ্গলবার বাসার মালিকের ভাই হারুনের বাসার একটি মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে তাকে সন্দেহ করেন তিনি। আছিয়া নিজেকে নির্দোষ দাবি করলে কবিরাজের মাধ্যমে ঔষধ খাওয়ান হারুন। এরপর আছিয়া বাবার বাড়ি মধুপুর গ্রামে চলে যান। বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারকে পুরো ঘটনা জানান তিনি। হঠাৎ করে ডায়রিয়া ও বমি হতে থাকলে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করলে তার অবস্থার অবনতি হয়। এক পর্যায়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি। নিহত আছিয়া তারাকান্দা মধুপুর গ্রামের আব্দুল কদ্দুছের মেয়ে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, হোগলা গ্রামের কামাল হোসেনের সাথে বিয়ে হয় আছিয়ার। ৪ বছরের একটি ছেলে শিশুর মা তিনি। সংসার জীবনে সুখী না হওয়ায় বাবার বাড়িতেই থাকতেন তিনি। সন্তানকে রেখে নুরুজ্জমান বকুলের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতেন তিনি।

বাসার মালিক নুরুজ্জমান বকুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি জরুরি কাজে ঢাকায় আছেন এবং গতকাল জানতে পেরেছেন তার গৃহকর্মীর মৃত্যুর খবর। ভাই হারুনের বিরুদ্ধে অভিযোগের ব্যাপারে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন।

তবে অভিযুক্ত হারুনের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে তারাকান্দা থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা