kalerkantho

হাসপাতালে কাতরাচ্ছে ধর্ষণের শিকার চার বছরের শিশু

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাসপাতালে কাতরাচ্ছে ধর্ষণের শিকার চার বছরের শিশু

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের বিছানায় কাতরাচ্ছে চার বছর বয়সের শিশু। ধর্ষণের শিকার হয়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে অসুস্থ শিশুটিকে গত সোমবার রাতে ভর্তি করানো হলেও গৌরীপুর থানায় মামলা হয় গতকাল বুধবার রাতে। আইসক্রিম খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে বন্ধু রাকিবের (১৩) সহযোগিতায় ধর্ষণ করে আরেক বন্ধু ইসমাইল (১৪)।

শিশুটির মা বাদী হয়ে এ ঘটনায় দুজনের নামে মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত দুজন হচ্ছে গৌরীপুর উপজেলার গাভী শিমুল এলাকার তারা মিয়ার ছেলে ইসমাইল ও একই গ্রামের হারুন মিয়া ছেলে রাকিবুল ইসলাম।

স্থানীয় সূত্র, শিশুটির পরিবার ও অভিযোগ থেকে জানা যায়, শিশুটির বাবা ঢাকায় রিকশা চালান। মা পরের বাড়িতে কাজ করেন। মা জানান, গত সোমবার দুপুরের পর থেকে তার শিশুকন্যাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় অনেক খোঁজাখুজিও করেও না পেয়ে হঠাৎ দেখতে পান কিছু দূর থেকে তার মেয়ে কান্নাকাটি করে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে বাড়ির দিকে আসছে। পরে কান্নার ও খুঁড়িয়ে হাটার কারণ জানতে চাইলে শিশুটি তাকে জানায় পাশের বাড়ির রাকিব আইসক্রিমের লোভ দেখিয়ে একটি জঙ্গলের কাছে নিয়ে যায়। পরে ইসমাইল নামে আরেকজন তাকে মুখ চেপে ধরে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে অনৈতিক কর্ম করে। একপর্যায়ে শিশুটির পা বেয়ে রক্ত ঝরাতে দেখে আতকে ওঠেন তিনি। পরে গৌরীপুরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে গত চার দিন ধরে চিকিৎসা চলছে।

শিশুটির বাবা জানান, তাঁর মেয়েকে ভর্তির পর গ্রামের একটি চক্র বিচারের নামে কালক্ষেপণ করে কোনো ধরনের কার্যক্ষেপ পদক্ষেপ নেয়নি। একপর্যায়ে থানাকে জানালে তারা মামলা নেয়। গৌরীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. গোলাম মওলা মামলা হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনার সাথে জড়িত দুজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা