kalerkantho

নবীনগরে গৃহবধূর আত্মহত্যা. প্ররোচণার অভিযোগ

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নবীনগরে গৃহবধূর আত্মহত্যা. প্ররোচণার অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় বিয়ের পাঁচ মাসের মাথায় এক গৃহবধূকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হলো। যৌতুকলোভী শ্বশুর বাড়ির লোকদের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ওই গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ আজ বুধবার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বিটঘর ইউনিয়নের ধনাশী গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে সৌদিপ্রবাসী আমীর হোসেনের সঙ্গে বিয়ে হয়। পুলিশ জানায়, বিয়ের সময় জামাইকে নগদ ২ লাখ টাকা যৌতুকও দেন রত্না নামে ওই গৃহবধূর বাবা। কিন্তু এরপরও শ্বশুর বাড়ির লোকেরা যৌতুকের জন্য রত্নার ওপর নানাভাবে মানসিক চাপ দিতে থাকে। একপর্যায়ে শ্বশুর বাড়ির লোকদের অত্যাচার সইতে না পেরে ঘটনার দিন মঙ্গলবার রাতে ঘরের ভেতরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধূ রত্না আত্মহত্যা করে।

শিবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিবেক দেবনাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বুধবার বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, লাশ উদ্ধার করে আজই (বুধবার) ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। তবে এর পেছনে 'আত্মহত্যার প্ররোচণা' ছিল কি-না সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা