kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পাঁচ যুবকের পেটে মিলল ১৩০০০ ইয়াবা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাঁচ যুবকের পেটে মিলল ১৩০০০ ইয়াবা

কুমিল্লায় পাঁচ যুবকের পেট থেকে ১৩ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। কক্সবাজার থেকে অভিনব কায়দায় পেটের ভেতরে করে ইয়াবা পাচারের সময় রবিবার রাত ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার পদুয়ার বাজার এলাকায় বাসে তল্লাশি চালিয়ে তাদেরকে আটক করে পুলিশ। পরে তাদের পেট থেকে বের করা হয় পলিথিনে মোড়ানো ১৩ হাজার পিস ইয়াবা।

আটককৃতরা হচ্ছে কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার হালসা গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২), কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী থানার ধনারচর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২০), একই জেলার চুলিয়ারচর গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে মো. সুলতান (১৯), রাজিবপুর থানার চরসাজৈ গ্রামের ওসমান গনির ছেলে শরিফুল ইসলাম (২২) ও একই উপজেলার চররাজিবপুর গ্রামের আবু বকর ছিদ্দিকের ছেলে ফারহজান রাজ (২২)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা ডিবি পুলিশের ওসি মো. মাইনুদ্দিন খানান, আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর সোমবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে পুলিশ চেকপোস্টের মাধ্যমে বিভিন্ন যানবাহন তল্লাশিকালে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা অভিমুখে আসা একটি মাইক্রোবাসের গতিরোধ করে পুলিশ। এ সময় মাদক কারবারিরা গাড়ি থেকে নেমে কৌশলে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে প্রথমে অস্বীকার করলে ডিবি পুলিশ পাশের একটি ক্লিনিকে নিয়ে এক্সরে করে পেটের মধ্যে ইয়াবার অস্তিত্ব পায়। পরে তাদের পেটের ভেতর থেকে বড় বড় ক্যাপসুলের মতো পলিথিমে মোড়ানো ইয়াবাভর্তি ২৬০টি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা প্যাকেটে ১৩ হাজার পিস ইয়াবা ছিল। 

কুমিল্লা ডিবি পুলিশের এসআই ইকতিয়ার উদ্দিন বাদী হয়ে এসংক্রান্তে কোতোয়ালি মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অইনে আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা