kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কেশবপুরে প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কেশবপুরে প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

যশোরের কেশবপুরে বসতবাড়ির জমিতে জবর দখল করে প্রভাবশালীর ঘর নির্মাণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলার মূলগ্রামের সাধন কুমার বিশ্বাস। প্রভাবশালী আব্দুল গনি খানের জবর দখল থেকে জমি ফিরে পাবার দাবিতে সোমবার দুপুরে কেশবপুর প্রেস ক্লাবে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সাধন কুমার বিশ্বাস লিখিত বক্তব্যে জানান, মূলগ্রাম মৌজার ৯০৫ খতিয়ানের ৮৫০ দাগের ২ শতক জমি তিনি ও তার ওয়ারেশগণ পৈত্রিক সূত্রে ভোগ দখল করে আসছেন। গত ৬ মাস আগে তার প্রতিবেশী মৃত মোহাম্মাদ আলী খানের ছেলে আব্দুল গনি খান ও তার ছেলে আব্দুর রাজ্জাক বাবলু, আব্দুল খালেক ওই ২ শতক জমি জোরপূর্বক দখল করে রান্নাঘর, পাকা সিড়ি নির্মাণ শুরু করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে সাধন বিশ্বাসের পরিবারের উপর ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে। জমি ফিরে পেতে চেষ্টা করায় তার পরিবারকে হয়রানি করতে আব্দুর রাজ্জাক বাবলু বাদি হয়ে গত ১ সেপ্টেম্বর বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিসেট্রট আমলী আদালতে একটি মামলা করে।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো জানান, আব্দুল গনি খানের ওই জমির কোনো কাগজপত্র না থাকা সত্ত্বেও তারা সম্পূর্ণ প্রভাব খাটিয়ে তার পৈত্রিক জমি দখল করে নিয়েছে। তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের সহযোগিতায় গনি খানের জবর দখলে থাকা পৈত্রিক সম্পত্তি ফিরে পাবার দাবি জানিয়েছেন।

এ সময় সাধন বিশ্বাসের সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রতিবেশী দুলাল বিশ্বাস, সুধীর বিশ্বাস, অশোক বিশ্বাস, অরুণ বিশ্বাস, গনেশ বিশ্বাস প্রমুখ।

এ ব্যাপারে আব্দুল গনি খান বলেন, সাধন বিশ্বাস আমার প্রতিবেশী। তার জমির সীমানায় আমার জমি হওয়ায় ১ লাখ টাকার বিনিময়ে তার কাছ থেকে আমি ওই ২ শতক জমি খরিদ করি। কিন্তু এখনও রেজিস্ট্রি করে দেয়নি। তবে সাধনের কথামতো ওই জমিতে রান্নাঘর ও সিড়ি নির্মাণ করেছি। তাদেরকে কোনো হুমকী ধামকি বা ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা