kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আগুনমুখায় জেলে ট্রলারডুবি

শখই যেন ডেকে আনল স্বপনের মৃত্যু

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৫:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শখই যেন ডেকে আনল স্বপনের মৃত্যু

ফাইল ফটো

ছোটবেলা থেকেই ঢাকায় বাস। গ্রামে এসেই হঠাৎ শখ মাছ ধরার। সেই শখের বসেই মাছ ধরার যাত্রা। কিন্তু কে জানত প্রথম যাত্রাই হবে শেষ যাত্রা। পরিবার হারাবে প্রিয়জনকে।

শখের বসে মাছ ধরতে গিয়ে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার আগুনমুখা নদীতে স্বপন হোসেন নামের এক তরুণের ট্রলারডুবির ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে। যদিও ওই ট্রলারের অপর তিন জেলে বেঁচে ফিরেছেন।

নিহত স্বপন উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের কাউখালী গ্রামের জেলে হারুন মিয়ার ছেলে। সে শখ করে ওই গ্রামের চাচা কালু রাঢ়ীর মালিকানাধীন জেলে ট্রলারের জেলেদের সঙ্গে রোববার সন্ধ্যায় মাছ ধরতে আগুনমুখা নদীতে গিয়েছিলেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সোমবার দুপুরে ট্রলার মালিক কালু রাঢ়ী বলেন, স্বপন আমার খালাতো ভাইয়ের ছেলে। ছোটবেলা থেকে ঢাকায় থাকত। এলাকায় এসে স্বপন শখ করে আমার ট্রলারের জেলেদের সঙ্গে নদীতে মাছ ধরতে যায়। কিন্তু রবিবার রাত আড়াইটার দিকে ঢেউয়ের তোড়ে তিন জেলেসহ স্বপনকে নিয়ে ট্রলারটি ডুবে যায়।

এ সময় ট্রলারে থাকা তিন জেলে সাঁতরে তীরে আসে। কিন্তু স্বপন তেমন সাঁতার না জানায় মারা যান। পরে সোমবার ভোরে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি (তদন্ত) মোস্তফা কামাল বলেন, স্বপন পেশায় জেলে ছিল না। শখ করে জেলেদের সঙ্গে মাছ ধরতে গিয়েছিল। তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে আনা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা