kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্ত্রীর দাবিতে বাড়িতে আসায় পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল প্রেমিক স্বামী

মাগুরা প্রতিনিধি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২২:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্ত্রীর দাবিতে বাড়িতে আসায় পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল প্রেমিক স্বামী

সান্তনা আক্তার

স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে বাড়িতে আসায় সান্তনা আক্তার (২০) নামে এক সেবিকাকে আজ রবিবার পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়েছে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা। সান্তনা শহরের পি টি এলাকার পলি ক্লিনিকে কর্মরত।

অন্যদিকে অভিযুক্ত তার প্রেমিক স্বামী কামাল হোসেন একই ক্লিনিকে ওয়ার্ডবয় হিসাবে কর্মরত। সান্তনা মাগুরার শালিখা উপজেলার পুখুরিয়া গ্রামের ছাদেক মীরের মেয়ে। কামাল খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার বরুণা গ্রামের সবুর বিশ্বাসের ছেলে। সন্ধ্যায় এলাকাবাসী সান্তনাকে উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

সান্তনা আক্তারের অভিযোগ, সে ও কামাল হোসেন মাগুরা শহরের পিটিআই এলাকায় পলি ক্লিনিকে চাকরি করে। সেই সূত্রে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দেড় মাস আগে তারা স্বেচ্ছায় বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এরই মধ্যে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি কামাল হোসেনকে জানালে সে সান্তনাকে বাড়ি তুলে নেওয়ার ক্ষেত্রে নানা তালবাহানা করতে থাকে। পাশাপাশি স্ত্রী হিসেবে তাকে অস্বীকার করে।

উপায়ন্তর না দেখে সে রবিবার বিকালে মাগুরা শহরের হাসপাতাল পাড়া এলাকায় প্রেমিক স্বামী কামাল হোসেনের ভাড়া বাড়িতে অবস্থান নেয়। তার অবস্থানে ক্ষুব্ধ হয়ে কামাল ও তার পরিবারের লোকজন সান্তনাকে পিটিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এলাকাবাসী সান্তনাকে চিকিৎসার জন্য মাগুরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

মাগুরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম জানান, ‘বিষয়টি শুনেছি। ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের লোকজনের অভিযোগের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব’।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা