kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বদলে যাচ্ছে আবুয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১২:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বদলে যাচ্ছে আবুয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

একসময় শেরপুরের শ্রীবরদীর আবুয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রী সংকট ছিল। শিক্ষকরাও বিদ্যালয়ে আসত অনিয়মিত। বিদ্যালয়েও এলেও পাঠদানে ছিল গাফিলতি। এ ছাড়াও নানা অনিয়মের কারণে বিদ্যালয়টির শিক্ষাব্যবস্থা ভেঙে পড়েছিল। মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে ওই বিদ্যালয়ে ঘটছে ব্যাপক পরিবর্তন। এখন প্রতিদিন ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি প্রায় শতভাগ। শিক্ষকরা আসেন নিয়মিত। যথাসময়ে শুরু হয় পাঠদান। প্রতিদিন জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন আর সমাবেশসহ চলে নানা কার্যক্রম। আন্তরিকতার সাথে শিক্ষকরা পাঠদান করান। এতে ক্রমে বদলে যাচ্ছে বিদ্যালয়ের দৃশ্যপট। রবিবার সরেজমিন ওই বিদ্যালয়ে গেলে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকসহ স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে ওঠে আসে এমন তথ্য। 

আবুয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরন নাহার জানান, বিদ্যালয়টি অনেক পুরনো। তবে নানা কারণেই এ বিদ্যালয়ের শিক্ষাব্যবস্থা ভেঙে পড়েছিল। তিনি যোগদানের পর থেকে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা। বর্তমানে এখানে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ২ শ। শিক্ষক সাতজন। প্রতিদিন জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন, সমাবেশসহ নানা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রত্যেকটি ক্লাসকে শিক্ষার উপযোগী করে তোলা হয়েছে। সময়মতো শিক্ষকরা পাঠদান করাচ্ছেন। ম্যানেজিং কমিটিও খোঁজখবর রাখছেন। শিক্ষা অফিসের পরিদর্শকরাও আসেন বিদ্যালয়ে। এ ছাড়াও সরকারি বরাদ্দকৃত টাকা বিদ্যালয়ের অবকাঠামোসহ শিক্ষাকাজে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। বিদ্যালয়ের সামনে গড়ে তোলা হচ্ছে ফুলের বাগান। প্রতিদিন বিদ্যালয় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কাজে বিশেষ তদারকি করা হচ্ছে। এ ছাড়াও তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের জন্যে পাঠদান শেষে বিশেষ ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। সাপ্তাহিক মূল্যায়নসহ ছাত্র-ছাত্রীদের মেধাবী করে গড়ে তুলতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। নেওয়া ডিজিটাল পদ্ধতিতে ক্লাস পরিচালনা নানা প্রযুক্তি। এতে ক্রমেই বদলে যাচ্ছে এই বিদ্যালয়ের দৃশ্যপট। 

তিনি আরো বলেন, আমরা নিরলস পরিশ্রম করে এই বিদ্যালয়ে মানসম্মত শিক্ষা প্রদান করে যাচ্ছি। যাতে অন্য দশটি বিদ্যালয় আমাদের বিদ্যালয়ের সাফল্য দেখে অনুসরণ করতে পারে। তার এই উদ্যোগকে স্থানীয় ম্যানেজিং কমিটিসহ অভিভাবকরা প্রশংসা করছেন। ফলে এলাকায় আলোচিত হয়ে উঠছে আবুয়ারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা