kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পটুয়াখালীতে মাইক্রোবাস চালককে পিটিয়ে হত্যা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০১:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পটুয়াখালীতে মাইক্রোবাস চালককে পিটিয়ে হত্যা

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের ঘটনায় কবির হোসেন বয়াতি (৪০) নামের এক মাইক্রোবাস চালককে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার সন্ধ্যায় ওই উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের কম্বুখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জুলাই মাসে ঢাকার মাইক্রো চালক কবির হোসেন বয়াতির ছেলেকে মারধর করে কুদ্দুস হাওলাদার গংরা। এ ঘটনায় কবির বাদি হয়ে থানায় কুদ্দুসসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার তিনজন আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে কবির জীবিকার তাগিদে ঢাকা চলে যান।

এদিকে আসামিরা জামিনে বের হয়। গতকাল শনিবার কবির ঢাকা থেকে নিজ বাড়ি ফিরলে পরিকল্পিতভাবে আসামিরা কবিরকে হত্যা করে। কুদ্দুসের দাবি, কবির তাদের বাড়ি হামলা করছে।

কবিরের পরিবারে সদস্যরা জানান, কবির সন্ধ্যায় তার বাড়ি থেকে স্থানীয় বগা বান্দরে যাওয়ার পথে কনকদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারের লোকজন কবিরকে প্রতিপক্ষরা জোর করে কুদ্দুস হাওলাদারের বাড়িতে নিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে কবিরকে উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কবিরকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মাইক্রোবাস চালক কবিরকে পিটানোর খবরে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠানো হয়। পুলিশ কবিরকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এ ঘটনায় মূল আসামি কুদ্দুসকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দিলে মামলা হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা