kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সাগরের স্বপ্ন কি অধরাই থেকে যাবে?

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাগরের স্বপ্ন কি অধরাই থেকে যাবে?

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগে মেধাবী শিক্ষার্থী সাগরের সব স্বপ্ন কি অধরাই থেকে যাবে? নানা প্রতিকূলতার মাঝেও স্বপ্ন পূরণে অবিচল তিনি। হত-দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেওয়া সাগরকে অভাব-অনটন আর কোনো বাঁধা-বিপত্তিই দমিয়ে রাখতে পারেনি। দরিদ্র বাবা-মা স্বপ্ন দেখেন ছেলে লেখাপড়া শেষ করে পরিবারের দীনতা ঘুচিয়ে দেশের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে। কিন্তু পরিবারটির স্বপ্ন পূরণে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দরিদ্রতা।

টিউশনি করে নিজের লেখাপড়ার খরচ চালানোর পাশাপাশি ছোট ভাইয়েরও উচ্চশিক্ষা অর্জনের স্বপ্ন দেখছেন। দরিদ্র ভ্যানচালক পিতা ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙনে ভিটেমাটি হারিয়ে আশ্রয় নিয়েছিলেন রাস্তার ধারে। সেটুকুও ছাড়তে হয়েছে প্রভাবশালীদের চাপে। বর্তমানে মেয়ের বাড়িতে ঝুঁপড়ি ঘর তুলে পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন। বয়সের কারণে ভ্যান চালানোর শক্তি হারিয়ে কর্মহীন পিতা আজ ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। কিভাবে ছেলেদের লেখাপড়ার খরচ যোগাবেন আর কিভাবেই বা চলবে সংসার। কঠিন সমিকরণের সামনে দাঁড়িয়ে পরিবারটির স্বপ্ন।

জা নাগেছে, পার্শ্ববর্তী চিলমারী উপজেলার নদী তীরবর্তী কাঁচকোল গ্রামের বাসিন্দা ভ্যানচালক হাফিজ উদ্দিন। ২০০৩ সালে ব্রহ্মপুত্র নদের করাল গ্রাসে ভিটেমাটি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে রাস্তার ধারে আশ্রয় নেন উলিপুর উপজেলার দক্ষিণ মধুপুর গ্রামে। দুই ছেলের লেখাপড়া আর সংসারের ঘানি টানতে টানতে এক সময় ক্লান্ত হয়ে পড়েন। বয়সের কারণে এখন আর কোনো কাজ করতে পারেন না। এরই মধ্যে রাস্তার ধারে আশ্রয়টুকুও হারাতে হয়েছে। এখন ওই গ্রামে মেয়ের জায়গায় কোনো রকম একটি ঝুঁপড়ি ঘর তুলে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

মেধাবী সাগর ২০১৪ সালে ধামশ্রেণি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও উলিপুর মহারাণী স্বর্ণময়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজে এইচএসসি পাস করে ভর্তি হন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগে। ২য় বর্ষের এ মেধাবী ছাত্র নিজের লেখাপড়ার পাশাপাশি ছোট ভাইয়েরও লেখাপড়ার খরচ যোগাচ্ছেন। ছোট ভাই  সদ্য এইচএসসি পাস করে ভর্তির জন্য ছুটছেন। বাবার অসহায়ত্ব, নিজের লেখাপড়া ও পরিবারের খরচ যোগাতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি। কিভাবে চলবে সবকিছু? বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ালেখা শেষ করে সমাজে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে কি সে? এমন দুঃশ্চিন্তায় দিন কাটছে তার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা