kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

জগন্নাথপুরে নিখোঁজ দুই বিএনপি নেতা অস্ত্রসহ ঢাকায় গ্রেপ্তার

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি    

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জগন্নাথপুরে নিখোঁজ দুই বিএনপি নেতা অস্ত্রসহ ঢাকায় গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে নিখোঁজ থাকা বিএনপির দুই নেতার সন্ধান পাওয়া গেছে। আজ শনিবার দুপুরে জগন্নাথপুর থানার এসআই হাবিবুর রহমান হাবিব পিপিএম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, জগন্নাথপুর থানায় নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে একটি জিডি করা হয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা তদন্ত শুরু করি। তদন্তের এক পর্যায়ে আমরা জানতে পারে নিখোঁজ দুই বিএনপির নেতা অস্ত্র-গুলিসহ ঢাকায় আইনশৃংখলা বাহিনীর নিকট আটক আছেন। তাদের সঙ্গে দুলন মিয়া নামে আরেক যুবককে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে অস্ত্র আইনে ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার একটি কপি ই-মেইলে আমরা পেয়েছি।

জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ও মামলার সূত্রে জানা যায়, গত ৫ সেপ্টেম্বর বিকেলে রাজধানীর সায়েদাবাদ এলাকা থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের স্পেশাল অ্যাকশন আর্মস এনফোর্সমেন্ট টিমের পুলিশ পরির্দশক (নিরস্ত্র) শেখ মনিরুজ্জামান একদল পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

আটককৃতরা হলেন, জগন্নাথপুর উপজেলার যুবদল নেতা ও জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত মন্তাজ উল্লার ছেলে আনসার মিয়া ও একই ইউনিয়নের টিয়াগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস শহিদ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদরের পুনিয়াউট এলাকার মৃত আশরাফ আলীর ছেলে দুলন।

আটককৃত বিএনপির দুই নেতাসহ বাকিদের বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। বর্তমানে তারা যাত্রাবাড়ী ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের হেফাজতে রিমান্ডে আছেন বলে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) এক সঙ্গে মোটরসাইকেলযোগে নবীগঞ্জের উদ্দেশে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন বিএনপির দুই নেতা। ৪ সেপ্টেম্বর যুবদল নেতা আনসার মিয়ার ভাগ্নে মুহিত মিয়া জগন্নাথপুর থানায় জিডি করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা