kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শেয়ালের জন্য ফাঁদ পেতে ছেলেকে হারালেন বাবা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেয়ালের জন্য ফাঁদ পেতে ছেলেকে হারালেন বাবা

শেয়ালের উপদ্রব থেকে রক্ষা পেতে মুরগির খামারের চারপাশে জিআই তারের সাথে বৈদ্যুতিক সংযোগ দিয়ে রাখেন মালিক রিপন মিয়া। সকালে সেই তারে স্পর্শ হয়েই প্রাণ যায় তার আট বছরের শিশু রিফাত মিয়ার।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ ধরনের মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের খানপুর গ্রামে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই গ্রামের রিপন মিয়া বাড়ির পাশেই দীর্ঘদিন ধরে মুরগির খামার দিয়ে ব্যবসা করে আসছেন। সম্প্রতি রাতের বেলা কিছু শেয়াল খামারের বেশ কিছু মুরগি খেয়ে ফেলায় ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছিল তার। এ অবস্থায় গত এক মাস ধরে খামারের চারপাশে জিআই তারের বেড়া দিয়ে সেই তারের সাথে বৈদ্যুতিক সংযোগ দিয়ে রাখেন তিনি। এই অবস্থায় বেশ কয়েকটি শেয়াল ছাড়াও বিড়াল ও কুকুরের মৃত্যু হয়েছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে খামারের মালিক রিপন মিয়া শিশু পুত্র রিফাত সকলের অগোচরে ঘুম থেকে উঠেই খামারের ভিতরে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় বৈদ্যুতিক সংযোগ দেওয়া জিআই তারের জড়িয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত ঈশ্বরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ খবরে বাবা রিপন নিজের এই ভুলের কারণে বারবার মুর্ছা যাচ্ছিলেন। আর বলছিলেন, আমি নিজেই আমার সোনার ধনকে হত্যা করলাম। আমারে তোমরা হত্যা করো। আমি বাঁচতে চাই না। বুক থাপ্পরে বলেন, এই ভুল আর কেউ যেন না করে। নিহত রিফাত স্থানীয় কানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়তো।

এ বিষয়ে ঈশ্বরগঞ্জ আঠারবাড়ি তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোতালেব হোসেন চৌধুরী জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের অভিযোগ না থাকায় বিনা ময়না তদন্তে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা