kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বড়াল নদে জেলের জালে ৪৪ কেজির শুশুক

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি    

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বড়াল নদে জেলের জালে ৪৪ কেজির শুশুক

ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী বড়াল নদে ৪৪ কেজির একটি শুশুক জেলের জালে আটক হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে আড়ানী রুস্তমপুর এলাকার বড়াল নদে এ শুশুক আটক হয়।

জানা যায়, বাঘা উপজেলার আড়ানী চকসিংগা গ্রামের সুজিত কুমার হালদারের ছেলে পলাশ কুমার হালদার ব্যাড় জাল নিয়ে আড়ানী রুস্তমপুর এলাকার বড়াল নদে মাছ ধরতে যায়। এ সময় তারা ব্যাড় জাল দিয়ে মাছ ধরার সময় ৪৪ কেজি ওজনের একটি শুশুক ধরা পড়ে। এটি ওই জেলে প্রথমে আড়ানী পৌর বাজারের মাছ আড়তে নিয়ে যায়। সেখানে ক্রয় করার কোন ক্রেতা পায়নি। পরে তিনি রাজশাহী শহরের এক মাছ আড়তে নিয়ে যায়। সেখানে শুশুকটি এক হাজার ৯০০ টাকা বিক্রি করে জেলে পলাশ হালদার।

এ বিষয়ে জেলে পলাশ কুমার হালদার জানান, শুশুকটি যখন জালে বাঁধে ওই সময় আমার মাছ ধরা ১০-১২ জনের সদস্যরা পানি থেকে উঠাতে পারছিলনা। অনেক কষ্টে শুশুককে উপরে তুলে আনা হয়। প্রথমে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতে না পেরে রাজশাহী শহরে অল্প টাকায় বিক্রি করা হয়।

আড়ানী মৎস্য ও সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুজিত কুমার হালদার বলেন, প্রথমে এটি চিনতে পারিনি। পরে জানলাম এটি শুশুক।

বাঘা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম বলেন, শুনেছি আড়ানী বড়ালে একটি শুশুক জেলের জালে ধরা পড়েছে। পদ্মার নদীর শাখা বড়ালে শুশুকটি যে কোনভাবে চলে আসে। পরে আর ফেরত যেতে না পেরে জেলের জালে আটক হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা