kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঈশ্বরদীতে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঈশ্বরদীতে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

পাবনা ঈশ্বরদীতে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় থানায় দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ধর্ষণের চেষ্টাকারী যুবককে শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান শুরু করেছে।

আজ বুধবার সকালে ঈশ্বরদীর ৫৬ নং চর সাহাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে জৈনক রাজ আলীর বাড়িতে ভাড়া মেসে এই ঘটনা ঘটে। অজ্ঞাত ধর্ষণের চেষ্টাকারী বখাটে যুবক রূপপুর পারমাণবিক শক্তি প্রকল্প নির্মাণের সাব-ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স বাংলাদেশের শ্রমিক।

স্থানীয় প্রতিবেশী হুজুর আলী জানান, সকাল আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে ৫৬ নং চর সাহাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে জোড় পুর্বক টেনে হিঁচড়ে মেসের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজনসহ ছুটে যায়। তখন বকাটে যুবক মেয়েটি ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। উত্তেজিত জনতা ও শিক্ষার্থীরা এবং শিক্ষকগণ ও মেসটি ঘিরে রেখে থানায় খবর দেন।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রতনা খাতুন জানান, সকালে মেয়েটি বিদ্যালয়ে আসছিল। বিদ্যালয়ে তখন শিক্ষার্থীদের অ্যাসেম্বলি চলছিল। এই সময় মেয়েটির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। খবর পেয়ে ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক শিক্ষিকাবৃন্দ ছুটে যান। কিন্তু বকাটেকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আসাদুল হক জানান, বিদ্যালয়ের পাশে ব্যাচেলরদের বাড়ি ভাড়া করে মেস তৈরি করতে দেওয়া ঠিক হয়নি। তারা অহেতুক বিদ্যালয় চলাকালে আশপাশে ঘুরাঘুরি করে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি রবিউল ইসলাম ডাব্লু জানান, খবর পেয়ে এলাকাবাসীসহ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা লাঠিসোটা নিয়ে ওই বাড়ির মেসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে ওই মেস থেকে ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়। এই বিষয়ে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তিনি ও মেয়ের বাবা পৃথক পৃথকভাবে দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) অরবিন্দ সরকার জানান, ধর্ষণের চেষ্টাকারী পালিয়েছে। তাকে শনাক্ত করতে ওই মেস থেকে চারজনকে থানায় আনা হয়। তারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে শিক্ষার্থীটি জানালে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, বকাটে ওই যুবককে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার অভিযান চলছে। এই ঘটনায় মেয়ের বাবা ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা