kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

প্রতারণার প্রতিশোধ হত্যায় !

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতারণার প্রতিশোধ হত্যায় !

আটকের পর সুমন ও তার বন্ধু আকবর আলী

চিরিরবন্দরে বুধবার দুপুরে ঝাক্কি ইমরান (৩৫) নামে এক যুবক খুনের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় সুমন (১৮) ও আকবর আলী (১৯) নামে দুজনকে আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। ইমরান চার বছর আগে সুমনকে ভারত সীমান্তে নিয়ে গিয়ে বিএসএফ'র কাছে ধরিয়ে দেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ প্রতারণার প্রতিশোধ নিতে ইমরানকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের ধারনা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নিহত ঝাক্কি ইমরান নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলার কোয়াটার্স কলোনীর টেনি মিয়ার ছেলে । একই কলোনীর কালু বাবুর্চির ছেলে সুমন। আকবর আলী একই উপজেলার হাতিখানা এলাকার সৈয়দ আলীর ছেলে। চার বছর আগে ইমরান ভারতের সীমান্তে কৌশলে সুমনকে নিয়ে গিয়ে বিএসএফ‘র হাতে ধরিয়ে দেয়। সুমন ৪ বছর ভারতের কারাগারে থেকে সম্প্রতি দেশে ফিরেছে।

প্রতিশোধ নিতে পরিকল্পনা করে সুমন কৌশলে ঝাক্কি ইমরানকে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার বাঙালপাড়া গ্রামে নানার বাড়ীতে বেড়াতে নিয়ে যায়। এরপর বুধবার সুযোগ বুঝে ইমরানকে বাঙালপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে নিয়ে হত্যা করে। সুমন ও তার বন্ধু আকবর আলী  ধারালো চাকু দিয়ে ইমরানকে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ ধান ক্ষেতে ফেলে পালিয়ে যাচ্ছিল। স্থানীয় লোকজন তাদের দেখতে পেয়ে ধাওয়া দিয়ে আটক করেন । গণপিটুনি দিয়ে তাদের চিরিরবন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যা পরিকল্পনাসহ নানা তথ্য জানিয়েছে।

চিরিরবন্দর থানার ওসি মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, 'নিহত ঝাক্কি ইমরানের লাশ থানায় রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা