kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

পাখিরা পেল মুক্তির স্বাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাখিরা পেল মুক্তির স্বাদ

খাঁচাবন্দি ৬শতাধিক পাখী পাচার ও বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছিল। ঘটনাক্রমে তারা পেয়েছে মুক্তির স্বাদ। ঢাকার বন্যপ্রাণী অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ইউনিটের একটি দল পাখিগুলোকে জাতীয় উদ্ভিদ উদ্যানে অবমুক্ত করেছেন।

সূত্র জানায়, ঢাকার বন্যপ্রাণী অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ইউনিটের একটি দল সোমবার বিশেষ অভিযান চালায় ঢাকার আশুলিয়া ও কামরাঙ্গীরচর এলাকায়।  সেখান থেকে উদ্ধার হয়েছে ২১০টি মুনিয়া, ৪২০টি তোতা ও ২১টি ঘুঘুসহ মোট ৬৫১ টি বিরল প্রজাতির পাখি । সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আশুলিয়ার ইটখোলা, জিরাবো এবং ঢাকার কামরাঙ্গীরচর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়।
 
বন্যপ্রাণী অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ইউনিটের পরিদর্শক অসীম মল্লিক জানান, চাপাইনবাবগঞ্জ থেকে যাত্রীবাহী একটি বাসে করে রাজধানীতে পাখি নিয়ে আসছিল একটি চক্র। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সকালে টঙ্গী-আশুলিয়া-ডিইপিজেড সড়কের জিরাবো ও ইটখোলা এলাকা থেকে কিছু পাখি উদ্ধার করা হয়। ঢাকার কামরাঙ্গীরচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে আরও বেশ কিছু পাখি উদ্ধার করা হয়। সব মিলিয়ে মুনিয়া, তোতা ও ঘুঘু প্রজাতির মোট ৬৫১ টি পাখি উদ্ধার করেন তারা।  

উদ্ধার করা পাখিগুলো মিরপুর জাতীয় উদ্ভিদ উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়েছে। তবে এঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা