kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আসামে চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশ

বড়লেখা সীমান্তে বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২০:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বড়লেখা সীমান্তে বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি

ভারতের আসামে চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশের পর মৌলভীবাজারের বড়লেখা সীমান্তে নিয়মিত টহলের পাশাপাশি নজরদারি বাড়িয়েছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিবি)।

শনিবার আসামের বহুল আলোচিত এই নাগরিক তালিকা প্রকাশিত হয়। তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ নাগরিক। বাদ পড়া ভারতীয়রা যাতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে তাই নজরদারি বাড়ানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

ভারতের আসাম রাজ্যের সঙ্গে সরাসরি সীমান্ত রয়েছে সিলেট জেলার জকিগঞ্জ, কানাইঘাট ও বিয়ানীবাজার উপজেলার এবং মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার। এজন্য অন্যান্য উপজেলা এলাকার পাশাপাশি সীমান্ত এলাকা সুরক্ষিত রাখতে এবং অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে মৌলভীবাজারের বড়লেখা সীমান্তে স্বাভাবিক কার্যক্রমের পাশাপাশি নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

আজ রবিবার (০১ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে সকাল ১০টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত বড়লেখা উপজেলার বিজিবির লাতু বিওপির আওতাধীন এলাকাগুলোতে ঘুরে বিজিবি সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে।

বিজিবির বিয়ানীবাজার ৫২ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান, এসপিপি, পিএসসি বলেন, ২০১৮ সালে ভারতে এনআরসির খসড়া তালিকা প্রকাশের পর থেকেই হেড কোয়ার্টার্সের নির্দেশে সতর্কাবস্থায় রয়েছে বিজিবি। শনিবার পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশের পর স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে বিজিবি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। তবে আসাম থেকে মানুষ সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে ঢুকতে চাইলে বা অনুপ্রবেশ করানোর চেষ্টা করলে তা প্রতিহত করার জন্য বিজিবি সীমান্তে নজর রাখছে।

সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারী নাগরিকদের ভীত না হয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। সীমান্তের যেকোনো অংশ দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করা হলে তা বিজিবিকে জানাতে বলা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা