kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

অভিমানে যুবকের আত্মহত্যা

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অভিমানে যুবকের আত্মহত্যা

শামীম হাওলাদার

কর্মজীবনের হতাশা আর পরিবারে অশান্তি থেকে পরিত্রান পেতে মাদারীপুর সদর উপজেলার মস্তফাপুরে আত্মহত্যা করেছেন এক যুবক। রবিবার সকালে নিজ বাড়ি থেকে শামীম হাওলাদারের (২৩) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

স্বজনরা জানান, শামীম হাওলাদার কয়েক বছর আগে সৌদি আরব যান কাজের জন্য। বাবা আলম হাওলাদার এ সময় মোটা অংকের টাকা ধার করে তাকে পাঠিয়েছিলেন। ছেলের উপার্জনে এসব টাকা শোধ হবে বলে তিনি ভেবেছিলেন। কিন্তু দায়দেনা পরিশোধ করার আগেই শামীম ফিরে আসেন দেশে। কয়েক মাস আগে বাড়ি ফিরে শামীম নানারকম কাজের চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে অটো রিকশা চালানো শুরু করেন। সে কাজেও মনযোগী না থাকায় বাবা তাকে মাঝে মাঝেই বকা দেন। দেনার টাকা পরিশোধ করার জন্য তাকে চাপ দেন। পরিবারে অশান্তি তৈরীর জন্য দায়ী করা হয় শামীমকে।

রবিবার সকালে কাজে না যাওয়ায় বাবা শামীমকে গালমন্দ করেন। এক পর্যায়ে ক্ষুদ্ধ বাবা-মা বাড়ি ছেড়ে চলে যান। বাড়িতে একা থাকার সুযোগে শামীম বসত ঘরের দরজা বন্ধ করে আড়ার সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দেন। বাড়ির অন্য ভাড়াটিয়া জানালা দিয়ে শামীমকে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলতে দেখে স্বজনদের খবর দেন। পরে তাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চাচা আজিজুল হাওলাদার বলেন, 'ভাড়াটিয়াদের চিৎকার শুনে আমি কাছে গিয়ে দেখি আড়ার সাথে শামীম ঝুলছে। এরপর নামিয়ে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।'

মাদারীপুর সদর থানার ওসি সাওগাতুল আলম জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত করে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা