kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মালয়েশিয়ায় গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল রায়পুরার আল আমিন

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি    

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মালয়েশিয়ায় গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল রায়পুরার আল আমিন

গত ২৫ আগস্ট মালয়েশিয়ায় সন্ত্রাসীদের হাতে খুন হওয়া নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার আল আমিনের (২০) লাশ আজ রবিবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে তার গ্রামের বাড়ি চরমধুয়া ইউনিয়নের সমীবাদ গ্রামে সমাহিত করা হয়েছে। এর আগে রবিবার ভোরে মালয়েশিয়ার একটি এয়ারলাইন্সে করে তার কফিনবন্দি লাশ হযরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়। সেখান থেকে লাশবাহী একটি গাড়িতে করে সকাল ৮টায় মৃতদেহটি তার গ্রামের বাড়িতে এসে পৌঁছায়। 

গত ২৫ আগস্ট কেলান্তান রাজ্যের গোয়া মুসাং জেলার সেন্ড্রপ এলাকার একটি সবজি বাগান থেকে আল আমিনের মাথা কাটা লাশ উদ্ধার করে মালয়েশিয়ান পুলিশ। এ ঘটনায় কেলান্তান রাজ্যে পুলিশ ওই বাগানের আশপাশে অভিযান চালিয়ে মিয়ানমার ও বাংলাদেশের ১০ জন সন্দেহভাজন নাগরিককে আটক করেছে বলে জানা গেছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আল আমিন রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চলের চরমধুয়া ইউনিয়নের সমীবাদ গ্রামের মৃত লব্বান মিয়ার ছেলে। তিনি গত বছরের শেষের দিকে স্থানীয় এক দালালের মাধ্যমে জীবিকার সন্ধানে অবৈধপথে পাড়ি জমান মালয়েশিয়াতে। ওখানে তিনি কেলান্তান রাজ্যের গোয়া মুসাং জেলার সেন্ড্রপ এলাকার একটি সবজি বাগানে শ্রমিক হিসাবে কাজ করতেন। গত ২৪ আগস্ট বাংলাদেশ সময় রাত ১টার কিছুপর তার বড় ভাই জামালের কর্মস্থল মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে উদ্দেশে রুম থেকে বের হন। পরদিন ২৫ আগস্ট সকালে শ্রমিকরা বাগানে কাজ করতে গিয়ে দেখতে পান আল আমিনের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। তার দেহ থেকে মস্তক বিচ্ছিন ছিল। ধারণা করা হচ্ছে তাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে লাশ উদ্ধার করেন। বাগানটিতে তল্লাশি চালিয়ে মালয়েশিয়ান পুলিশ সন্দেহভাজন ১০ ব্যক্তিকে আটক করে। তবে কে বা কারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে মালয়েশিয়ান পুলিশ এর রহস্য এখনও উন্মোচন করতে পারেনি বলে জানিয়েছে নিহতদের স্বজনরা।

নিহতের আল আমিনের চাচা চরমধুয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. জামাল মিয়া কালের কণ্ঠকে জানান, তার ভাই মারা যাওয়ার পর তার ভাবি অনেক কষ্টে দুই ছেলে ও এক মেয়েকে বড় করে তোলে। বড় ভাতিজা জামাল মালয়েশিয়া যাওয়ার সাত বছর পর দালালের মাধ্যমে অবৈধপথে মালয়েশিয়া পাড়ি জমান আল আমিন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা