kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রায়পুরে ভাই-বোনের বিরোধে এসআইকে মারধর, আটক ৪

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০২:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রায়পুরে ভাই-বোনের বিরোধে এসআইকে মারধর, আটক ৪

বিরোধীয় জমিতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে লক্ষ্মীপুরে রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মানিক বড়ুয়াকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। 

এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়। গতকাল শনিবার রাতে পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ল্যাংড়াবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে ল্যাংড়া বাজার ও আশপাশ এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত শান্ত, মামুন ও ফরহাদসহ চারজনকে আটক করেছে। খবর পেয়ে আটকদের স্বজন ও অনুসারীরা থানার মূল ফটকে জড়ো হয়। এ সময় পুলিশ  থানার মূল ফটক কয়েক ঘণ্টা বন্ধ করে রাখে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় লোকজন জানান, রায়পুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম হায়দার চৌধুরী ও তার বোন হাসিনা বেগমের ৩০ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ওই জমির মূল্য প্রায় কোটি টাকা বলে জানা গেছে।

হাসিনা বেগমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সম্প্রতি ওই জমির একটি অংশে আদালত ১৪৪ ধারা জারি করেন। কিন্তু সেখানে থাকা একটি পরিত্যক্ত ঘরে শনিবার রাত ৮টার দিকে গোলাম হায়দারের ছেলে শান্তসহ কয়েক অনুসারীকে নিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে পরিকল্পিতভাবে হাসিনাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়। 

খবর পেয়ে এসআই মানিক বড়ুয়া পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান। এ সময় শান্ত ও তার লোকজন ওই এসআইকে মারধর করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত চারজনকে আটক করে।

এ ঘটনায় গোলাম হায়দার চৌধুরী ও তার বোন হাসিনা বেগম পরস্পরকে দায়ী করছেন।

আহত এসআই মানিক বড়ুয়া বলেন, কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমাকে নাজেহাল করা হয়। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তোতা মিয়া সংবাদকর্মীদের বলেন, ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা