kalerkantho

দুর্নীতিমুক্ত সেবা প্রদানে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শপথ

সোজা বাড়ি পাঠিয়ে দেব

ভূমি সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ২২:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোজা বাড়ি পাঠিয়ে দেব

ছবি: কালের কণ্ঠ

ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীন কোনো অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারী যদি ঘুষ নেয় এবং অনিয়ম করে তাহলে তাকে সোজা পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী।

তিনি আরো বলেন, আমরা জনগণের টাকায় বেতন নেই। তাদের হয়রানিমুক্ত সহজ করে সেবা দেওয়াই আমাদের কাজ। এর বাইরে আমাদের মন্ত্রণালয়ের অধীনে কোনো অফিসের কোনো কর্মকর্তা কর্মচারী যদি অনিয়ম করে থাকে তাহলে তাকে সোজা বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হবে। বহু বেকার রয়েছে। যে জনগণের টাকায় বেতন নিয়ে ঠিকভাবে সেবা দিবে না তার আমাদের দরকার নেই।

রবিবার বিকেলে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসন আয়োজিত স্বচ্ছ, দক্ষ ও জনবান্ধব ভূমি ব্যবস্থাপনায় শুদ্ধাচার ও উত্তম চর্চা বিষয়ক এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা এই হুঁশিয়ারি দেন ভূমি সচিব। এ সময় তিনি কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক কর্মকর্তা কর্মচারীকে নিজেদের জনগণের খাদেম মনে করে দুর্নীতিমুক্ত সেবা প্রদান করার শপথ করান তিনি। অংশগ্রহণকারী সবাই তার সঙ্গে শপথ বাক্য পাঠ করেন।

এর আগে দুর্নীতিমুক্ত জনবান্ধব সেবা বিষয়ে দীর্ঘ ৩ ঘণ্টা বক্তব্য রাখেন তিনি। বক্তব্যে তিনি ভূমি মন্ত্রণালয়ের হাতে নেওয়া বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন। ভূমি মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন সেবা আধুনিকায়ন ও সহজ করাসহ জনবল ও অবকাঠামো নির্মাণ করার বিভিন্ন পরিকল্পনার কথাও জানান ভূমি সচিব। 

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী আব্দুল আলীম খান ওয়ারেশী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল মান্নান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাঈমুল হাছান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, বোদা উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক আলম টবি ও আটোয়ারী উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলামসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সকল রাজস্ব, ভূমি অধিগ্রহণ, জেনারেল সার্টিফিকেট, রেকর্ডরুম, আরএম অফিসের সকল কর্মকর্তা, সার্ভেয়ার, কানুনগো, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী ও উপসহকারী কর্মকর্তাসহ সকল তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মকর্তা, জরিপ বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেয়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা