kalerkantho

'উন্নয়ন থামিয়ে দেওয়াই ছিল আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মূল লক্ষ্য'

কর্ণফুলী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৪ আগস্ট, ২০১৯ ২১:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'উন্নয়ন থামিয়ে দেওয়াই ছিল আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মূল লক্ষ্য'

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে থামিয়ে দেওয়া হয় বাংলাদেশের উন্নয়ন। কিন্তু তাদের আশা সফল হয়নি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার হত্যাকারীদের আইনের আওতায় এনেছেন আর  দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে এগিয়ে নিচ্ছেন।

আজ শনিবার সন্ধ্যায় কর্ণফুলী উপজেলার ক্রসিং এলাকার একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

তিনি আরো বলেন, এ দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে এ আগস্ট মাসে আরেকটি হত্যাকাণ্ড ঘঠিয়েছিল বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক। এরা চেয়েছিল বাংলাদেশের উন্নয়নের মা শেখ হাসিনাকে হত্যা করে এ দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আ ম ম টিপু সুলতান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথী চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ও কর্ণফুলী উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রচার সম্পাদক নুরুল আবছার চৌধুরী, আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম এ মালেক, কর্ণফুলী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমদ, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি ও কর্ণফুলী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, দিদারুল আলম চেয়ারম্যান, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ সোলাইমান, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক কৃষ্ণ প্রসাদ ধর, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সোলায়মান তালুকদার, বোয়ালখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবদুল মান্নান, সাতকানিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি একেএম আসাদ, পটিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি নুরুল সিদ্দিক।

এ ছাড়া পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বেলাল উদ্দিন, আনোয়ারা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ওসমান গণি রাসেল, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম হক, চন্দনাইশ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তৌহিদুল আলম চৌধুরী, বাশঁখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অধ্যাপক তাজুল ইসলাম প্রমূখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা