kalerkantho

বাকবিতণ্ডার জের, লাখাইয়ে ছেলের হাতে বাবা খুন!

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৮:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাকবিতণ্ডার জের, লাখাইয়ে ছেলের হাতে বাবা খুন!

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামে পিতা-পুত্রের ঝগড়ায় পিতা খুন হয়েছেন। এই ঘটনায় ছয়জনকে আটক করা হলেও পুত্র পলাতক রয়েছে। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তেঘরিয়া গ্রামের মৃত আছকির মিয়ার ছেলে হারুন মিয়া (৪৮) শুক্রবার সন্ধ্যায় তার মা মনোয়ারা বেগম এর কাছে টাকা চায়। কিন্তু মনোয়ারা বেগম টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে হারুন মিয়া মায়ের সাথে দুর্ব্যবহার করে। এ সময় হারুন মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া তার দাদির পক্ষ নিয়ে বাবার সাথে তর্কে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে হারুন মিয়া তার ছেলে মামুন মিয়াকে ধাওয়া করলে বাড়ির পাশে একটি জলাশয়ে পড়ে গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় হারুন মিয়াকে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গুরুতর অবস্থায় তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করেন। ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে ভৈরব এলাকায় রাত ১১টার দিকে হারুন মিয়ার মৃত্যু হয়। 

শনিবার দুপুরে হারুন মিয়ার পরিবার কাউকে না জানিয়ে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের উদ্যোগ নিয়ে লাখাই থানা পুলিশ ঘটনা জানতে পেরে বাড়িতে এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত হারুন মিয়ার বোন শিউলি আক্তার চৌধুরী, তার স্বামী হাদিস মিয়া, সন্তান শাকিল মিয়া, আত্মীয় এখলাছুর রহমান, আক্তার মিয়া ও শহীদ মিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

লাখাই থানার ওসি এমরান হোসেন জানান, পিতা-পুতের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। হারুন মিয়ার লাশ গোপনে দাফন করার খবর জানতে পেরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা