kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ জানুয়ারি ২০২০। ১০ মাঘ ১৪২৬। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বরগুনায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

বরগুনা প্রতিনিধি   

২৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরগুনায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

বরগুনা জেলা শহরের ভাড়ানী খাল দখল করে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা শনিবার গুঁড়িয়ে দিয়েছে বরগুনা জেলা প্রশাসন। বরগুনা জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে।

বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনিচুর রহমান জানিয়েছেন, পঙ্গু সৈনিক নামে পরিচিত আবদুর রব প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের সুপারিশক্রমে প্রথমে ভূমি অফিসের মাধ্যমে ৪ শতাংশ খাসজমি বরাদ্দ নেন। পরবর্তীতে আদালতের মাধ্যমে আরো ৫ শতাংশ জমি বরাদ্দ পেয়েছেন। সেই জমি থেকে নীতিমালা লঙ্ঘন করে দেড় শতাংশ জমি আবদুল হালিম নামে একজনের কাছে বিক্রি করেছেন। 

আবদুর রব এর বাইরেও আরো ৫ শতাংশ জমি অবৈধভাবে দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে প্রতিমাসে লক্ষাধিক টাকা ভাড়া আদায় করে আসছিলেন এবং ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অর্ধকোটি টাকা জামানত হিসেবে নিয়েছেন। আবদুর রবের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের বিষয়ে বরগুনাবাসী দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিলেন। সর্বশেষ গত ২১ আগস্ট বরগুনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় বরগুনা জেলা নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন কামাল ভাড়ানীখালের পাড় দখল করে আবদুর রবের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবি জানান। ওই দিনের সভায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়।

শনিবার সকাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের অভিযান শুরু হয়। বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনিচুর রহমানসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও পৌর কর্তৃপক্ষের যৌথ উদ্যোগে পাকা, সেমিপাকা ও কাঠের তৈরি ১৫টি স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা