kalerkantho

মুসল্লিদের কাছে ক্ষমা ঈমামের কাছে তওবা করলেন মাদক কারবারি

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি   

২৩ আগস্ট, ২০১৯ ২২:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুসল্লিদের কাছে ক্ষমা ঈমামের কাছে তওবা করলেন মাদক কারবারি

হাজীগঞ্জ পৌর এলকার টোরাগড় মিজি বাড়ি মসজিদের ঈমামের কাছে তওবা করে ওয়াদা করছেন আর মাদক বিক্রি করবেন না। ছবি : কালের কণ্ঠ

শুক্রবার জুমার নামাজ পূর্ববর্তী সময় মামুন মিজি (৩০) এক মাদক কারবারি মসজিদে উপস্থিত হয়ে আর মাদক বিক্রি করবেন না বলে মুসল্লিদের কাছে ক্ষমা চাইলেন। একই সময় এই মাদক কারবারি ওই মসজিদে ঈমামের হাত ধরে তওবা করলেন। আজ শুক্রবার এমন ঘটনাটি ঘটে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার টোরাগড় মিজি বাড়ি জুম্মা মসজিদে। সে ওই এলাকার বিল্লাল হোসেনের ছেলে। 

স্থানীয় মুসল্লিদের সূত্রে জানা যায়, মামুন এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি। দীর্ঘদিন ধরে সে এই পেশার সঙ্গে সরাসরি জড়িত। সম্প্রতি সময় পুলিশের মাদক বিরোধী চিরুনী অভিযানে মামুন এলাকা ছাড়া ছিল। তার পরিবার তাকে বহুবার চেষ্টা করে এই পেশা থেকে ফেরাতে পারেনি। 

হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ জানান, মাদক, বাল্যবিয়ে গুজবসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ধারাবাহিক কাজের অংশ হিসেবে শুক্রবার পৌর এলাকার টোরাগড় মিজি বাড়ি জামে মসজিদে মুসল্লিদের মাঝে বক্তব্য রাখেন অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন।

ওসির বক্তব্য শেষ হওয়া মাত্র মুসল্লি হিসেবে নামাজ পড়তে আসা মাসুন হঠাৎ মসজিতে দাঁড়িয়ে হাতজোড় করে আর মাদক বিক্রি করবে বলে প্রতিজ্ঞা করে। এর পরেই সে সকল মুসল্লিদের সামনে তাকে তওবা করানোর জন্য ঈমামকে অনুরোধ করেন। মামুনের এ ঘটনায় সবাই হতবাক হয়ে মামুনকে বাহবা দিতে থাকে। 

মামুনের ক্ষমা ও তওবা করার বিষয়টি কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেন হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন। সে তওবা ও ক্ষমা চাইলেই আমরা তাকে আইনি ছাড় দিতে পারি না। তবে ভবিষ্যতে মাদক বিক্রি করে কিনা এ বিষয়ে আমাদের নজরদারি অব্যাহত থাকবে আর সে ভালো হলে আমাদের কাছে ভালো লাগবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা